রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:১৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের দায়িত্ব : পরিকল্পনামন্ত্রী মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ড. মোমেনের বৈঠক যুদ্ধ বন্ধ করুন : জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী সব সময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে সৌদি আরব : রাষ্ট্রদূত আল দুহাইলান নলছিটিতে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা ভোলার ২৫০ শয্যা হাসপাতালের আধুনিক ভবন নির্মানের ৩ বছরেও চালু হয়নি পটুয়াখালীতে ইউপি সচিবের দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলীর তদন্ত বেতাগীতে সরকারি গাছ কাটতে বাঁধা দেয়ায় এক যুবককে কুপিয়ে আহত ভোলায় দেশি হাঁসের কালো ডিম পাড়া নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি আপনজন ভাবনাঃ এস এম আক্তারুজ্জামান, ডিআইজি বরিশাল রেঞ্জ

চলাফেরায় কঠোর বিধিনিষেধ শুরু পশ্চিমবঙ্গে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপলোডের সময় : সোমবার, ৩ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৫০ বার পঠিত

আজ সোমবার থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের সব স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ হচ্ছে। এ ছাড়া আগামী ১৩ দিন জিম, সুইমিং পুল, বিউটি সেলুন, স্পা-ও বন্ধ থাকছে। সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এ খবর জানিয়েছে।

কোভিড মোকাবিলায় গতকাল রোববারই কড়া বিধিনিষেধ জারির ঘোষণা করে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যসরকার। সে বিধিনিষেধ কার্যকর হচ্ছে আজ থেকে। এ বিধিনিষেধ জারি থাকবে আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত। আর, এ সময়কালে রাজ্যে ফের বন্ধ থাকবে সেলুন, স্পা, বিউটি পার্লার ইত্যাদি।

এর আগে করোনার সংক্রমণে যখন প্রথম বার পশ্চিমবঙ্গে লকডাউন জারি করা হয়েছিল, সে সময়ও দীর্ঘদিন বন্ধ থেকেছিল স্পা, বিউটি পার্লার ও সেলুন। এরপর করোনার সংক্রমণ কিছুটা কমলে ধাপে ধাপে খুলেছিল সেগুলো। কোভিডবিধি মেনে গ্রাহকেরা সেলুন বা স্পা-তে যেতে পেরেছিলেন। কিন্তু, পুনরায় রাজ্যে করোনার সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী হতেই বন্ধ হচ্ছে স্পা, বিউটি পার্লার, সেলুনের দরজা।

তা ছাড়া আজ থেকে পশ্চিমবঙ্গের সব স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ হচ্ছে। শিক্ষা কার্যক্রম আবারও অনলাইনে ফিরছে। তবে, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কর্মক্ষেত্রে যেতে পারবেন। যদিও এ উপস্থিতির হার ৫০ শতাংশের বেশি হতে পারবে না।

একইভাবে সরকারি ও বেসরকারি অফিসের ক্ষেত্রেও দিনে সর্বাধিক ৫০ শতাংশ কর্মীকে অফিসে ডাকা যাবে। বাকি ৫০ শতাংশ কর্মচারীকে ‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ করতে হবে।

এদিকে, আগামী ১৩ দিন জিম ও সুইমিং পুলও বন্ধ থাকছে। তা ছাড়া বন্ধ থাকছে বিনোদন পার্ক, চিড়িয়াখানাসহ বিভিন্ন পর্যটনস্থল।

আর, শপিংমল ও মার্কেট কমপ্লেক্সে ধারণক্ষমতার সর্বাধিক ৫০ শতাংশ লোক ঢুকতে পারবেন। শপিংমলগুলো রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

তা ছাড়া সিনেমা হল, রেস্তোরাঁ ও পানশালাতেও ধারণক্ষমতার সর্বাধিক ৫০ শতাংশ লোক ঢুকতে পারবেন। একইভাবে ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে চলবে লোকাল ট্রেন ও মেট্রো। লোকাল ট্রেন চলবে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত। তবে, দূরপাল্লার ট্রেনে কোনও বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়নি।

এদিকে, রাত্রিকালীন বিধিনিষেধের সময়সীমা বাড়িয়ে রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা করা হয়েছে।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..