বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৪৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ইরানি সংস্কৃতিতে আমূল পরিবর্তন প্রয়োজন, বললেন খামেনি রেলপথে ৩৪০ দিনে ১ হাজার ৫৩৫ দুর্ঘটনায় নিহত ২৬১ প্রধানমন্ত্রীর নতুন মুখ্য সচিব তোফাজ্জেল হোসেন মিয়া অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির জন্য সমুদ্র নিরাপদ রাখতে কাজ করছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী বিএনপি পল্টনেই কেন সমাবেশ করতে চায়, খতিয়ে দেখা হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কক্সবাজারের মানুষ আমার হৃদয়ে আছে : প্রধানমন্ত্রী এলএনজি সরবরাহে আগ্রহী ইতালি বিএনপি অফিসে লাঠি-ককটেলের খবরে অভিযানে যায় পুলিশ: ডিএমপি কমিশনার ২০২৪ সালের প্রথম সপ্তাহে নির্বাচন, নৌকা মার্কায় ভোট চাই : প্রধানমন্ত্রী ভোলায় প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে পাল্টে গেছে ভূমিহীনদের জীবন

ঢাবির শহীদুল্লাহ্ হলে ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ উদ্বোধন

ঢাবি প্রতিনিধি
  • আপলোডের সময় : রবিবার, ২ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৩৭ বার পঠিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, বঙ্গবন্ধু, বাংলাদেশ ও ঢাকা বিশ্ববিদালয় একইসূত্রে গাঁথা। তাই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে জানলেই বাংলাদেশ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে জানা যাবে।

আজ রবিবার (২ জানুয়ারি) ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ হলে নব-নির্মিত ‘বঙ্গবন্ধু কর্নার’ উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপনের অংশ হিসেবে হল লাইব্রেরিতে এই কর্নার নির্মাণ করা হয়।
হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জাবেদ হোসেনের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. রহমত উল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া, ফজলুল হক মুসলিম হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. শাহ্ মো. মাসুম, অমর একুশে হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. ইসতিয়াক এম. সৈয়দসহ হলের আবাসিক শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইন বিভাগের শিক্ষার্থী ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বত্র তাঁর স্মৃতি থাকা বাঞ্ছনীয়। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও সংগ্রামকে শিক্ষার্থীদের মাঝে তুলে ধরতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্যেক স্থাপনায় বঙ্গবন্ধু কর্নার সংযুক্ত করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ সম্পর্কিত বিশেষায়িত গ্রন্থসমূহ এখানে সংগ্রহ করা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা উৎসাহ ও আগ্রহের সঙ্গে বঙ্গবন্ধু কর্নারে রাখা গ্রন্থসমূহ পড়বে এবং বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশকে জানবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..