সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ১২:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাঙ্গাবালী উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি আরিফ, সম্পাদক জামিল পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি প্রধান আসামি গ্রেফতার মুরাদনগরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্লাস্টিকের বেঞ্চ সরবরাহ দা-বঁটি-ছুরি-চাপাতি বানাতে ব্যস্ত কামার শিল্পী, টুংটাং শব্দে মুখরিত তাড়াইল মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মিরপুর সাইন্স কলেজের ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে : ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় করার ব্যাপারে আশাবাদী মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মির্জাগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান আবু বকর, ভা: চেয়ারম্যান শাওন মহিলা ভা: চেয়ারম্যান হাসিনা নির্বাচিত

মুরাদনগরে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ভবন নির্মাণ

রায়হান চৌধুরী (কুমিল্লা) প্রতিনিধি:
  • আপলোডের সময় : বুধবার, ৫ জুন, ২০২৪
  • ৫৭৫৬ বার পঠিত

আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা সদর ইউনিয়নের নাগেরকান্দি বাজারের নাগেরকান্দি-ডুমুড়িয়া সড়কের পাশে বহুতল ভবন নিমার্ণের অভিযোগ এক প্রভাবশালী মহলের বিরুদ্ধে। এছাড়া উচ্চ আদালতের রায় ‘‘স্থিতাবস্থা’’উল্লেখ করে সংশ্লিষ্ঠ দফতরে অভিযোগ দিয়েও মিলছে না প্রতিকার।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উচ্চ আদালতে দায়েরকৃত রিটের স্থিতাবস্থা আদেশ উপেক্ষা করে উপজেলার নাগেরকান্দি মৌজার আরএস ঘতিয়ান নং- ৫০, ৫৬ জমিতে বহুতল ভবন নিমার্ণ কাজ চলমান। মৃত সমসের আলীর ছেলে আজগর আলী সরকার বাদী হয়ে হাইকোর্ট ডিভিশন সিভিল ডিভিশনে মামলা করেন যার মোকাদ্দমা নং- ৩২০/২০২২ এর পরিপেক্ষেতে গত ১৯ মে আরএস খতিয়ানের ৫৬, ৫০, ৯৯, ৫৬, ১০৬ দাগে সকল সম্পত্তি সমস্ত প্রকার বেচা-কেনা, হস্তান্তর এবং এর উপর স্থিতাবস্থা প্রদান করেন। কিন্তু তা স্বত্বেও প্রভাশালী মানিককান্দি গ্রামের সামছুল হক ভূইয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম ও মুছা মিয়ার ছেলে কবির হোসেন বহুতল ভবন নিমার্ণ করে যাচ্ছে।

ভবন নিমার্ণকারী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, এই সম্পত্তি আমরা ক্রয় সূত্রে মালিক। আমাদের জমিতে আমরা ভবন নিমার্ণ করছি। আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকার বিষয়টি আমাদের জানা নেই।

মামলার বাদী পক্ষে গং আমজাদ হোসেন বলেন, এই সম্পত্তির মালিক আমি ও আমার গংরা। কিছু প্রভাবশালী মহল আমাদের সম্পত্তি দখল করে রেখেছে। যা দখলধারদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে। বর্তমানে উচ্চ আদালতের নিষধাজ্ঞা থাকার পরও ওই মহলটি স্থাপনা নিমার্ণ করে যাচ্ছে। এই বিষয়ে আমি প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি।

এ বিষয়ে মুরাদনগর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাসরিন সুলতানা নিপা বলেন, আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকার বিষয়টি আমাদের জানা নেই। তবে রায়ের কপি হাতে পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..