বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ১২:১২ অপরাহ্ন

ইতিহাস বদলানোর মিশনে ব্রাজিলের সামনে ক্রোয়েশিয়া

ক্রীড়া ডেস্ক:
  • আপলোডের সময় : শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৫৭৮০ বার পঠিত
ব্রাজিলের সামনে ক্রোয়েশিয়া

পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল নিঃসন্দেহে বিশ্বকাপ ইতিহাসের অন্যতম সেরা দল। তবে সাম্প্রিতিক সময়ে ক্রোয়েশিয়ার উত্থানটাও কিন্তু চোখে পড়ার মতো। গত বিশ্বকাপেই ফাইনাল পর্যন্ত খেলেছে লুকা মদ্রিচদের দল। সাম্প্রতিক সময়ে ভালো খেললেও নিজেদের ফুটবল ইতিহাসে এখন পর্যন্ত ব্রাজিলের বিপক্ষে জয় পাওয়া হয়নি ক্রোয়েটদের। তাই সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ের পাশাপাশি এটি মদ্রিচদের জন্য ইতিহাস বদলানোর মিশনও।

দোহার এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে শুক্রবার কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে ব্রাজিল ও ক্রোয়েশিয়া। বাংলাদেশ সময় রাত ৯ টায় শুরু হবে ম্যাচটি। বাংলাদেশি চ্যানেলগুলোর মধ্যে বিটিভি, টি-স্পোর্টস ও গাজী টেলিভিশন সরাসরি সম্প্রচার করবে এ ম্যাচ।

কোয়ার্টার ফাইনালের আগ পর্যন্ত হিসাব করলে, বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ফেভারিটের মতোই খেলেছে ব্রাজিল। নিজেদের প্রথম ম্যাচে সার্বিয়াকে ২-০ গোলে হারানোর পর ক্যাসেমিরোর একমাত্র গোলে সুইজারল্যান্ডের সঙ্গে জেতে তিতের শিষ্যরা। গ্রুপ পর্বে শেষ ম্যাচে অবশ্য ক্যামেরুনের বিপক্ষে শেষ মুহূর্তের গোলে হারতে হয় সেলেসাওদের। তবে সে ম্যাচে মাঠে নামেননি দলটির তেমন কোনো তারকা স্ট্রাইকার।

দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে উড়ন্ত জয় আবার আত্মবিশ্বাস ফিরিয়েছে তিতের ক্যাম্পে। নকআউটের প্রথম ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়াকে ৪-১ গোলে হারিয়েছেন নেইমার-ভিনিসিউসরা। তাই ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে বেশ আত্মবিশ্বাস নিয়েই মাঠে নামতে চলেছেন পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

অন্যদিকে লাতকো দালিচের ক্রোয়েশিয়া প্রথম ম্যাচে মরক্কোর সঙ্গে ড্র করার পর কানাডাকে হা্রিয়ে প্রথম জয় পায়। গ্রুপের শেষ ম্যাচে বেলজিয়ামের সঙ্গে ড্র করে এফ গ্রুপের রানার্সআপ হয়ে শেষ ষোলতে আসে লুকা মদ্রিচরা। শেষ ষোলর লড়াইয়েও জয়টা সহজে আসেনি ক্রোয়েটদের। জাপানের বিপক্ষে নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ে ১-১ গোলে ড্র করার পর টাইব্রেকারে ৩-১ গোলে জিতে শেষ আটে পা রেখেছে দলটি।

এখন পর্যন্ত বিশ্ব আসরে মোট দুইবার মুখোমুখি হয়েছে ব্রাজিল-ক্রোয়েশিয়া। ২০০৬ ও ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বের দুই দেখায় দুবারই শেষ হাসি হেসেছিল ব্রাজিল। প্রথমবার কাকার গোলে ১-০ তে জয় পায় সেলেসাওরা। আর ২০১৪ নিজেদের মাঠের বিশ্বকাপে ৩-১ গোলে জেতে ব্রাজিল, নেইমার করেন জোড়া গোল।

বিশ্বকাপ ছাড়া আরও দুইবার মুখোমুখি হয়েছে এই দুই দল। তাতেও কখনও ব্রাজিলকে হারাতে পারেনি ক্রোয়েশিয়া। সবশেষ ২০১৮ সালে নেইমার ও রবার্তো ফিরমিনোর দ্বিতীয়ার্ধের গোলে ২-০ তে প্রীতি ম্যাচ জিতেছিল সেলেসাওরা। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে ক্রোয়েশিয়া কেবল একবারই হার এড়াতে পেরেছিল। ২০০৫ সালে প্রথমবারের দেখায় ড্র করেছিল দুই দল। তবে ঐবারই প্রথম এবং ঐবারই শেষ। এরপরার কখনো হার এড়াতে পারেনি গত বিশ্বকাপের রানার আপরা।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..