শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০২:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সড়ক ও জনপথ কর্মকর্তার ব্যাংকে শত কোটি টাকার লেনদেন হরিরামপুরে ৪ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা অনিয়ম-দুর্নীতির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা অর্জনের অভিযোগ ডিপিএইচই’র প্রাক্কলনিক আনোয়ারের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের উন্নয়নে চীনের সমর্থন অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিলেন শি জিনপিং বেনজীর-মতিউর-এর কুশপুতুল দাহ করায় হুমকি : উদ্বেগ প্রকাশ কোটা সমস্যার সমাধান করার দাবি জাতীয় শিক্ষাধারার হরিরামপুরে পদ্মা তীর রক্ষা বাঁধে ধস, জনমনে আতংক মুরাদনগর শ্রীকাইলে ক্যাপ্টেন নরেন্দ্রনাথ দত্ত স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে হুরোয়া চ্যাম্পিয়ন তাড়াইলের কথিত পীর লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ বর্ষার পানি বৃদ্ধির সঙ্গে বাড়ছে নৌকার চাহিদা

আগৈলঝাড়ায় ৩ জনের বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি মামলা, প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

বরিশাল জেলা প্রতিনিধি
  • আপলোডের সময় : শুক্রবার, ৭ জুলাই, ২০২৩
  • ৫৮৪৭ বার পঠিত

বরিশালের আগৈলঝাড়ায় গৃহবধুর দায়ের করা পর্নোগ্রাফি মামলার প্রধান আসামি কাজী বিফোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৪ জুলাই) রাতে তাকে গ্রেপ্তার করে বুধবার সকালে বরিশাল আদালতে প্রেরণ করা হয়।

থানার ওসি (তদন্ত) মো. মাজহারুল ইসলাম এজাহারের বরাত দিয়ে জানান, গৌরনদী উপজেলার বার্থী গ্রামে বিয়ে দেয়া মেয়ে কাজী নিশাত (১৯) কয়েকদিন আগে আগৈলঝাড়া উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের ভালুকশী গ্রামে বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসে। গত সোমবার দুপুরে ওই গৃহবধু বাড়ির পুকুরে গোসল করতে যায়। এ সময় একই বাড়ির কাজী আজাদের ছেলে গৃহবধুর চাচাতো ভাই কাজী বিফোর (২২) গোপনে ওই গৃহবধুর গোসল করা ও কাপড়-চোপড় পাল্টানোর নগ্ন ভিডিও দৃশ্য তার নিজের ফোনে ধারণ করে। এর আগে বিভিন্ন সময়ে বখাটে বিফোর তার চাচাতো বোনকে বিভিন্ন কু-প্রস্তাব দিয়ে উত্যক্ত করে আসছিলো।

সোমবার রাতেই বখাটে বিফোর গোসলের ভিডিও ওই গৃহবধুর ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে রাতে তার সাথে দেখা করতে বলে। গৃহবধু বিফোরের কথায় রাজি না হলে বিফোর ম্যাসেঞ্জারে ফোন দিয়ে তার কাছে ২লাখ টাকা দাবি করেন। দাবিকৃত টাকা না দিলে তার অশ্লীল ভিডিও ইন্টারনেটের ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয়।

বিষয়টি ওই গৃহবধু তার স্বামী ও বাবার পরিবারের লোকজনকে জানান। পরিবারের লোকজন ঘটনায় অভিযুক্ত বিফোরের পরিবারের কাছে জানালে বিফোরের দাদা কাজী সাহাদাৎ হোসেন (৬০) ও বড় ভাই কাজী তুষার (২৬) অভিযোগ আমলে না নিয়ে বরং তারা বিফোরের ধারণ করা ভিডিওটি গোপন করার চেষ্টা করে।

স্থানীয়ভাবে বিচার না পেয়ে ভুক্তভোগী ওই গৃহবধু বাদী হয়ে ফিরোজকে প্রধান আসামি এবং তাকে সহায়তা করার জন্য তার দাদা ও ভাইকে আসামি করে মঙ্গলবার (৪ জুলাই) রাতে ২০১২ সালের পর্নোগ্রাফি আইনের ৮(১)/৮(২)৮(৩)/৮(৭) ধারায় আগৈলঝাড়া থানায় মামলা দায়ের করেন। যার নম্বর-৪।

ওই মামলায় অভিযান চালিয়ে মঙ্গলবার রাতেই প্রধান আসামি কাজী বিফোরকে (২২) গ্রেপ্তার করে আগৈলঝাড়া থানা পুলিশ। পরে বুধবার সকালে তাকে বরিশাল আদালতে প্রেরণ করা হয়।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..