মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
রাঙ্গাবালী উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি আরিফ, সম্পাদক জামিল পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি প্রধান আসামি গ্রেফতার মুরাদনগরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্লাস্টিকের বেঞ্চ সরবরাহ দা-বঁটি-ছুরি-চাপাতি বানাতে ব্যস্ত কামার শিল্পী, টুংটাং শব্দে মুখরিত তাড়াইল মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মিরপুর সাইন্স কলেজের ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে : ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় করার ব্যাপারে আশাবাদী মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মির্জাগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান আবু বকর, ভা: চেয়ারম্যান শাওন মহিলা ভা: চেয়ারম্যান হাসিনা নির্বাচিত

বেতাগীতে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য খুচিয়ে ক্ষত: থানায় অভিযোগ

আরিফুর রহমান সুজন:
  • আপলোডের সময় : সোমবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৫৮১১ বার পঠিত

বরগুনার বেতাগী পৌর শহরের মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের সামনে স্থাপিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যর দুই চোখ, মুখ, কান, গলার অংশের টাইলস ইট দিয়ে খুচিয়ে খুচিয়ে ক্ষত করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে প্রতিকৃতিটি ভাঙা অবস্থায় স্থানীয়দের নজরে আসে। এর পরপরই বিকেলে প্রতিকৃতিটি লাল কাপড় দিয়ে ঢেকে দেয় উপজেলা প্রশাসন।

জানা গেছে, ২০১৮ সালে উপজেলার পৌর শহরের ৭নং ওয়ার্ডে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনটি নির্মাণ করা হয়। টাইলস দিয়ে নির্মিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিটি মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের নিচতলায় স্থাপন করা হয়। গত ৯ সেপ্টেম্বর রাতের কোনো এক সময় বঙ্গবন্ধুর এ ভাস্কর্যের মুখ, কান, গলা ও দুই চোখের অংশের টাইলস ভাঙে উঠিয়ে ফেলা হয়। সোমবার সকালে বিষয়টি ভবনের কেয়ারটেকার শামিম মাঝির নজরে আসে। এরপর সে কর্তৃপক্ষকে ঘটনাটি জানায়।

মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের কেয়ারটেকার মো. শামিম আহমেদ মাঝি বলেন, সকালে অফিসে এসে দেখি বঙ্গবন্ধুর দুই চোখ, কান ও নাকের অংশের টাইলস উঠানো। ঘটনাটি আমি তাৎক্ষণিক মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার রেজাউল করীম ফারুক সিকদারকে জানাই। অতপর তিনি ইউএনও স্যারকে বিষয়টি জানায়। আমরা থানায় গিয়ে একটি লিখিত অভিযোগ করে আসি।

বেতাগী পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এসবিএম জিয়াউর রহমান জুয়েল বলেন, দুই একদিন আগে যেকোনো দুস্কৃতকারী ব্যক্তি টাইলস দিয়ে নির্মিত বঙ্গবন্ধুর দুটি চোখ, মুখ, কানের একটি অংশ এবং গালের একটি অংশ ইট দিয়ে টাকিয়ে উঠিয়ে ফেলেছে। সোমবার বিষয়টি নজরে এলে উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এসি ল্যান্ড এসে বিকেলে ভাস্কর্যটি লাল কাপড় দিয়ে ঢেকে দেয়।

বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার ঘটনায় সোমবার বিকেলে বেতাগী উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা ডেপুটি কমান্ডার রেজাউল করিম ফারুক সিকদার থানায় এসে একটি লিখিত অভিযোগ দিয়ে যায়। বিষয়টি আমরা তদন্ত করছি।

বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. ফারুক আহমেদ বলেন, মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর মুরালটি কে বা কারা ক্ষতিগ্রস্থ করেছে। বিকেলে গিয়ে মুরালটি লাল কাপড় দিয়ে ঢেকে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছি।

বেতাগী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাকসুদুর রহমান ফোরকান বলেন, কোন ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে কেউ এই কাজটি করেছে। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। আশাকরি তদন্তে দোষীরা বেরিয়ে আসবে।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..