রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:১০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
লিবিয়া থেকে আরো ১৪৪ জন অনিয়মিত বাংলাদেশী দেশে ফিরেছেন স্বাস্থ্যসেবা বিকেন্দ্রীকরণ শুরু হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী পবিত্র রমজানে নিত্যপণ্যের সংকট হবে না: প্রধানমন্ত্রী পটুয়াখালী পৌর নির্বাচনের প্রতীক বরাদ্দ, অংশগ্রহণের অধিকাংশই তরুণ তাড়াইলে দাখিল পরীক্ষায় নকলের অভিযোগে মাদ্রাসার অধ্যক্ষসহ গ্রেফতার ৩ ওসি সাজ্জাদ হোসেন’র কৌশলী ভূমিকায়- পলাশবাড়ীতে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির ব্যাপক উন্নতি শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় ভাষা শহীদদের স্মরণ ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা নিবেদন যথাযথ অনুবাদের মাধ্যমে বাংলা শিল্প-সাহিত্যকে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির শ্রদ্ধা নিবেদন

যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হওয়ার খবর ভিত্তিহীন : শাকিব

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপলোডের সময় : মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৬০২৬ বার পঠিত

ঢাকাই সিনেমার সুপারস্টার শাকিব খান দেশ ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী হচ্ছেন বলে শোনা যাচ্ছে।  তবে এ খবরটি পুরোপুরি ভিত্তিহীন বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি এ খবরে ভক্তদের বিব্রত না হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন এই নায়ক।

গতকাল সোমবার বিকেল ৩টার দিকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে শাকিব খান বলেন, যারা তার যুক্তরাষ্ট্রে থাকা নিয়ে নানান কথা বলছেন, তারা আসলে এই প্রক্রিয়া না জেনেই কথা বলছেন।

১৬তম চ্যানেল আই মিউজিক অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে অংশ নিতে গত ১২ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে যান  ‘কিং খান’। এরপর গত ৫ ডিসেম্বর ঢালিউড ফিল্মস অ্যান্ড মিউজিক অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানেও অংশ নেন। দুই অনুষ্ঠানের মঞ্চে শাকিব ঘোষণা দেন তিনি তার নতুন সিনেমার শুটিং করবেন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন রাজ্যে। এ সময় বিশ্বব্যাপী সিনেমা মুক্তির কথাও বলেন তিনি। এ জন্য সবকিছু মাথায় রেখে যুক্তরাষ্ট্রে শুটিংয়ের প্রি-প্রোডাকশন গুছিয়ে নিচ্ছেন বলে জানান।

শাকিব খান বলেন, ‘আমার এখানে স্থায়ী বসবাসের কথা উঠছে কেন? আমি তো চাইলে আগামী মাসেই দেশে ফিরতে পারি। অন্য দেশে যাওয়ার মতো কিছু তো ঘটে নাই। আমি এখানে কাজের মধ্যে আছি। যারা বড় আয়োজনে সিনেমা বানায় তারা বোঝে প্রি-প্রোডাকশনে কত মাস লাগে! আমেরিকার মতো দেশে আমি প্রথম সিনেমা করতে যাচ্ছি, সবকিছু গোছাতে গোছাতে তো আমার দিনরাত পার হয়ে যাচ্ছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমেরিকার গ্রিন কার্ড দেশটির সরকার সম্মান জানিয়ে বিভিন্ন দেশের সেলেব্রেটিদের দিয়ে থাকে। এই সম্মানটা সবাইকে দেওয়া হয় না। যাদের দেয় তারা সম্মানিত হয়ে গ্রহণ করেন। আর কোভিডের আগে দেশে থাকতে অন্য প্রক্রিয়ায় আমার গ্রিন কার্ড ঠিক হয়ে ছিল। তার মানে তো এই না যে আমি আমার দেশ ছেড়ে দিচ্ছি।’

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..