মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাঙ্গাবালী উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি আরিফ, সম্পাদক জামিল পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি প্রধান আসামি গ্রেফতার মুরাদনগরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্লাস্টিকের বেঞ্চ সরবরাহ দা-বঁটি-ছুরি-চাপাতি বানাতে ব্যস্ত কামার শিল্পী, টুংটাং শব্দে মুখরিত তাড়াইল মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মিরপুর সাইন্স কলেজের ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে : ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় করার ব্যাপারে আশাবাদী মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মির্জাগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান আবু বকর, ভা: চেয়ারম্যান শাওন মহিলা ভা: চেয়ারম্যান হাসিনা নির্বাচিত

সিইসি প্রতিহিংসা চরিতার্থে নিকৃষ্ট পথ বেছে নিয়েছেন : ইসি মাহবুব

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপলোডের সময় : শনিবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৫৮৯২ বার পঠিত

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) প্রতিহিংসা চরিতার্থের জন্য নিকৃষ্ট পথ বেছে নিয়েছেন বলে মন্তব্য করে নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, ‘বর্তমান ও সাবেক নির্বাচন কমিশনাররা বিধি মোতাবেক কমিশন থেকে চিকিৎসার খরচ নিয়ে থাকেন। কে এম নূরুল হুদা নিজেও নির্বাচন কমিশন থেকে চিকিৎসার জন্য টাকা নিয়েছেন।’

‘নির্বাচন কমিশনার হিসেবে যথাযথ চিকিৎসা পাওয়া আমার মৌলিক অধিকার’ উল্লেখ করে ইসি মাহবুব বলেছেন, ‘নির্বাচন কমিশনারদের চিকিৎসাবিধি অনুযায়ী আমার চিকিৎসার ব্যয় নির্বাহ করা হয়েছে। তবে গত দুই বছরে আমি চিকিৎসার জন্য সরকারিভাবে বিদেশে যাইনি। বরং এই দুই বছর চিকিৎসার জন্য সম্পূর্ণ নিজের খরচে আমি আমেরিকা গিয়েছি।’

‘চিকিৎসার অর্থ ব্যয় সম্পর্কে আমার বক্তব্য’ শিরোনামে গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ শুক্রবার ইসি মাহবুব এ সব কথা বলেছেন।

মাহবুব বলেছেন, ‘নির্বাচন বিষয়ে আমার ভিন্নধর্মী অবস্থানের কারণে সিইসি তার প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য চিকিৎসার বিষয় উল্লেখ করে আমার বিরুদ্ধে নিকৃষ্ট পথ বেছে নিয়েছেন।’

মাহবুব তালুকদার বলেছেন, ‘গত ২৭ জানুয়ারি প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা নির্বাচন কমিশন ভবনে সংবাদ সম্মেলন করে আমার চিকিৎসার ব্যয় বছরে ৩০ লাখ থেকে ৪০ লাখ টাকা বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। তিনি খরচের প্রকৃত হিসেব প্রদান করেননি।’

ইসি মাহবুব বলেছেন, ‘তিনি (সিইসি) আমাকে রোগাক্রান্ত ব্যক্তি বলে উল্লেখ করে বলেছেন, আমি কখনও আইসিইউতে বা কখনও সিসিইউতে থাকি। কিন্তু ইচ্ছা করলেই কেউ আইসিইউ বা সিসিইউ-তে থাকতে পারে না।’

‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাসপাতালের চার জন চিকিৎসক মেডিকেল বোর্ড গঠন করে দুই দফা শারীরিক পরীক্ষা করেন। এরপর তাঁরা বিদেশে চিকিৎসার জন্য অনুমোদন দেন’ জানিয়ে মাহবুব তালুকদার বলেছেন, ‘প্রকৃতপক্ষে আমি নির্বাচন কমিশনার হওয়ার সময় থেকেই প্রোস্টেট ক্যানসারে আক্রান্ত। সেই ক্যানসার শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পড়ছে। আমি সিঙ্গাপুর ও ভারতের চেন্নাইয়ে চিকিৎসা করিয়েছি।’

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..