সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৩:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
তাড়াইলে ৪ গরু চোর গ্রেফতার, জব্দ গাড়িসহ ৬টি গরু পটুয়াখালীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজাউল করিম সোয়েবের ইশতেহার ঘোষণা  রেড ক্রিসেন্টের প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা সাজানো: কর্মকর্তাদের মাঝে চাপা ক্ষোভ ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবিলায় প্রস্তুতি, ফায়ার সার্ভিস, ছুটি বাতিল : মনিরটিং সেল গঠন এমপি আনার খুনের তদন্তে ভারত যাবে গোয়েন্দা পুলিশ কোন দলের নেতাকর্মীকে জেলে পাঠানোর এজেন্ডা আমাদের নেই: ওবায়দুল কাদের সাকিব নট আউট ‘৭০০’ সরকার সকল ধর্মের বিশ্বাসীদের নিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে চায় : প্রধানমন্ত্রী ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমালের মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে সরকার : মহিববুর রহমান

ভোলা-লক্ষিপুর রুটে ফেরী অচল, তীব্র যানযট

সাব্বির আলম বাবু (ভোলা ব্যুরো চিফ):
  • আপলোডের সময় : সোমবার, ১৬ মে, ২০২২
  • ৫৮৭৬ বার পঠিত

সাব্বির আলম বাবু (ভোলা ব্যুরো চিফ):

যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে ভোলা-লক্ষীপুর রুটের দুটি ফেরি বন্ধ রয়েছে। এতে বাকি মাত্র দুটি ফেরি দিয়ে পারাপার সচল রাখায় ভোলার ইলিশা ঘাটে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, চারটি ফেরির স্থলে বর্তমানে মাত্র দুটি ফেরি চলাচল করায় কিছুতেই এ জট কমছে না। এ অবস্থায় একটি ফেরি সচল হলেও ঘাটের পরিস্থিতি এখনো স্বাভাবিক হয়নি। এতে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকরা পড়েছেন চরম বিপাকে।

জানা গেছে, দক্ষিণাঞ্চলের জেলা ভোলার সঙ্গে যোগাযোগাযোগের সহজ মাধ্যম হচ্ছে নৌ পথ। এ অঞ্চলের যাত্রীদের চলাচলের একমাত্র ভরসা ভোলা-লক্ষ্মীপুর ফেরী সার্ভিস। এ রুটে কিষানি, কলমিলতা, কুসুমকলি ও কনকচাঁপা নামে চারটি ফেরি চলাচল করে। কিন্তু ৩ দিন আগে কিষানী নামের একটি ফেরি যান্ত্রিক ত্রুটি ও কলমিলতা নামের অপর ফেরি ডকইয়ার্ডে পাঠানো হয়। ফলে মাত্র দুটি ফেরি দিয়ে পারাপার করায় উভয় পাড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। চরম দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন যাত্রী-চালকরা।

ট্রাকচালক মহসিন, ছিদ্দিক ও জসিম জানান, ফেরি সংকটের কারণে পার হতে পারছি না। ঘাটে অনেক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। তারা বলেন, আগে ৪টি ফেরি চলতো, এখন চলে দুটি। এতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘাটে বসে থাকতে হচ্ছে। প্রচণ্ড রোদের মধ্যে যাত্রীদেরও ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।

এদিকে ৩ দিন পর কৃষানি ফেরি সচল হলেও যানজট পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। ভোলার ইলিশা ও লক্ষ্মীপুরের মজু চৌধুরীরহাট ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় আছে দেড় শতাধিক পরিবহন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করেও ফেরির দেখা পাচ্ছে না বাসগুলো। এ ব্যাপারে বিআইডব্লিউটিসির ম্যানেজার (ফেরির ইনচার্জ) পারভেজ খান বলেন, বন্ধ দুটির মধ্যে একটি ফেরি সচল হয়েছে। কিছুটা দুর্ভোগ হলেও আগামী ২/৩ দিনের মধ্যে এ জট থাকবে না। এদিকে দ্রুত এ রুটের সমস্যার সমাধান চান দক্ষিণাঞ্চলের মানুষ।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..