বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৬:০২ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
শিবালয়ে বিশ্ব জাকের মঞ্জিল দরবার শরীফ কর্মী গ্রুপ মানিকগঞ্জ জেলার উদ্যোগে ঐতিহাসিক আজিমুশ্বান ইসলামী জলছা আগামী শুক্রবার এবার ঘোড়ায় আগমন দেবীর, হরিরামপুরে ৬৮ মন্ডপে চলছে প্রস্তুতি পাঠ্যসূচি নিয়ে কারো কথায় বিভ্রান্ত হবেন না : শিক্ষামন্ত্রী বিএনপির হাঁকডাক খালি কলসি বেশি বাজার মতো : তথ্যমন্ত্রী পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আগামীকাল বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস আগামীকাল উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সবাইকে একযোগে কাজ করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির অবাধ তথ্য প্রবাহের অপব্যবহার করে কেউ যেন সমাজে অস্থিরতা সৃষ্টি করতে না পারে : তথ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে সামাজিক যোগাযোগে উন্নয়ন সংক্রান্ত সহস্রাধিক ভিডিও আপলোড জেলা শ্রেষ্ঠ নারী প্রধান শিক্ষক নলছিটির আইরিন চৌধুরী পুরুষ বিভাগে নাজমুল হাসান

গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত আছে বলেই আজকের উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ মার্চ, ২০২৩
  • ৫৭৯২ বার পঠিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ২০০৮ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়ে একটানা গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত আছে বলেই আজকের উন্নয়ন সম্ভব হয়েছে। ’৭৫ সাল থেকে বার বার গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকতে পারেনি। রাজনীতি স্থিতিশীল থাকতে পারেনি। কাজে, বাংলাদেশ সেভাবে এগোতে পারিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, যারা ক্ষমতায় ছিল তারা বাংলাদেশকে নিয়ে কী চিন্তা করে সেটা নিয়ে প্রশ্ন ছিল। আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সময় অনেক দেশ, যারা আমাদের মুক্তিযুদ্ধকে সমর্থন করেনি, তাদের বক্তব্য ছিল- এই বাংলাদেশ স্বাধীন হয়ে কী হবে? এটা ছিল তাদের ধারণা।

আজ সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে স্বাধীনতা পুরস্কার-২০২৩ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের পর করোনার ধাক্কা, এরপর ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে আমাদের দেশের অগ্রযাত্রা ব্যাহত হয়েছে। এরপরও আমরা চেষ্টা করছি অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে। আমরা যা করছি সব পরিকল্পিতভাবে করছি। আমাদের সরকার সবসময় গবেষণায় জোর দিচ্ছে। বিষয়ভিত্তিক গবেষণায় আমরা জোর দিয়েছি।’

করোনার ক্ষতির কথা তুলে ধরে সরকারপ্রধান বলেন, করোনার সময় আমরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি। রমজানে এক কোটি পরিবারকে কমমূল্যে পণ্য দিচ্ছি। আমরা ভর্তুকি দিয়ে রমজানের পণ্য তাদের হাতে তুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করছি। আমরা মানুষের কষ্ট যখন দেখি তখন তা কীভাবে লাঘব করব সেই কাজ করছি।’

নিজেদের টাকায় পদ্মা সেতু করার কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, অনেকে তখন বলেছিলেন বাংলাদেশের টাকায় পদ্মা সেতু নির্মাণ সম্ভব না। কিন্তু আমরা আত্মবিশ্বাস নিয়ে কাজ করেছি। আমরা বলেছিলাম নিজেদের টাকায় সেতু করব। বঙ্গবন্ধু তার বক্তব্যে বলেছিলেন কেউ দাবাইয়া রাখতে পারবে না। আমরা পদ্মা সেতু করে দেখিয়ে দিয়েছি বাংলাদেশ পারে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, পদ্মাসেতু করতে গিয়ে আমাদের ওপর মিথ্যা অপবাদটা দেওয়া হয়েছিল, সেই মিথ্যা অপবাদ নিতে আমরা রাজি ছিলাম না। আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, পরে প্রমাণ হলো যে কোনো দুর্নীতি হয়নি।

তিনি বলেন, যোগাযোগ ব্যবস্থার যে উন্নয়নটা হয়েছে সেটা আপনারা জানেন। অনেক বাধা আমাদের অতিক্রম করতে হয়।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..