শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
বেতাগীতে উপজেলা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে ইউপি চেয়ারম্যানের পদত্যাগ মুরাদনগরে প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবসে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন প্রধানমন্ত্রীর তৃতীয় ধাপে ১১২টি উপজেলার ভোটগ্রহণ ২৯ মে ঝালকাঠিতে ট্রাক, অটোরিকশা ও প্রাইভেট কারের ত্রিমুখী সংঘর্ষে ১৪ জন নিহত মধ্যপ্রাচ্যের অস্থিরতার প্রতি নজর রাখার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর মির্জাগঞ্জে কৃষি জমিতে সেচ দিতে গিয়ে যুবক ফিরলো লাশ হয়ে মির্জাগঞ্জে ইসি সচিব’র সাথে মতবিনিময় সভা পটুয়াখালীতে সাবেক ইউপি সদস্যের স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু তাড়াইলে জাতীয় উলামা মশায়েখ আইম্মা পরিষদের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

ধারন ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে বেতুয়া টু ঢাকা যায় তাসরিফ লঞ্চ

সাব্বির আলম বাবু (ভোলা ব্যুরো চিফ):
  • আপলোডের সময় : রবিবার, ২ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৫৯৯৪ বার পঠিত

ভোলার চরফ্যাশন বেতুয়া টু ঢাকার উদ্দেশ্য ছেড়ে আসা এমবি তাসরিফ-৩ লঞ্চের বিরুদ্ধে ধারন ক্ষমতার বাইরে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে ভোলা-ঢাকা যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। এছাড়া লঞ্চের ভিতরব ছিলনা, পর্যাপ্ত কোন যাত্রীদের জন্যে রাখা সেফটি সরঞ্জামাদি কিংবা লাইফ জ্যাকেট অথবা কোন বয়া। জানা যায়, ভোলার বেতুয়া ঘাট থেকে ঢাকাগামী লঞ্চ এমবি তাসরিফ-৩ ছেড়ে এসে ভোলার দৌলতখান উপজেলায় আসে লোকাল লঞ্চঘাট করে। এসময় লঞ্চটি তার ধারন ক্ষমতার বাইরে অতিরিক্ত প্রায় ২৫০০ যাত্রী নিয়ে দৌলতখান লঞ্চঘাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্য ছেড়ে যায়। এবিষয়ে গনমধ্যমের কর্মীরা অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে গিয়ে পৌছালে, লঞ্চের স্টাফরা ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে লঞ্চের ভিতরে বিদ্যুৎ সংযোগ একপর্যায় বন্ধ করে দেয়। এসময় এবিষয়ে জানতে, তাসরিফ-৩ লঞ্চের দায়িত্ব প্রাপ্ত সুপারভাইজার কে জিজ্ঞেস করলে, তিনি গণমাধ্যম কে এড়িয়ে যান এবং উক্ত বিষয়ে বক্তব্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন। এদিকে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায় যেখানে লঞ্চের ধারন ক্ষমতা যেখানে ৫৫০/৬০০জন, সেখানে ২৫০০ জনের মতো অতিরিক্ত কয়েকগুণ যাত্রী নিয়ে লঞ্চটি ঢাকার উদ্দেশ্য দৌলতখান লঞ্চ টার্মিনাল ত্যাগ করে। এসময় লঞ্চের ডেকের ফ্লোর সহ উপরে তলা সহ নিচে কোথাও কোন তিল পরিমাণ যায়গা খালি ছিলনা বলে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়।এছাড়াও যেকোন দুর্ঘটনা এড়াতে যাত্রীদের জন্য নেই পর্যাপ্ত সরঞ্জামাদিও।
এবিষয়ে লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি মো.মাহাবুবুর রহমান এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, বাংলাদেশ নৌ পরিবহন এর নীতিমালা অনুযায়ী অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে লঞ্চ ঘাটথেকে গন্তব্যপথ ত্যাগকরা দণ্ডনীয় অপরাধ। সেক্ষেত্রে অবশ্যই তারা তদন্তকরে প্রমাণ পেলে,তাসরিফ-৩ লঞ্চের মালিক ও স্টাফদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা গ্রহণ করার কথা জানান।
বি আই ডাব্লিউ টি এর চেয়ারম্যান জনাব রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের মুঠোফোনে জানান-বিষয়টি অত্যান্ত দুঃখজনক! অতিরিক্ত যাত্রীনিয়ে লঞ্চ পরিচালনা কিংবা লঞ্চের নীতিমালা অনুযায়ী পর্যাপ্ত পরিমান যাত্রীদের সেফটি সরঞ্জামাদি বীহিন লঞ্চঘাট থেকে ছেড়ে আসা আইনত অপরাধ। যাহা কোনভাবে কাম্যনয়। এসময় তিনি এবিষয়ে তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে যথাযথ প্রমাণ পেলে উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে দ্রুতই এমবি তাসরিফ-৩ লঞ্চের বিরুদ্ধে ব্যাবস্তা গ্রহণ করার আশ্বাস প্রধান করেন।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..