বৃহস্পতিবার, ১১ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৪৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
তাড়াইলে জাতীয় উলামা মশায়েখ আইম্মা পরিষদের ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত ঈদ উপলক্ষে অসহায় শিশুদের মাঝে এসো গড়ি ফাউন্ডেশন’র পোশাক বিতরণ ঈদে নাড়ির টানে ঘড় মুখো মানুষের নিরাপদ যাত্রা নিশ্চিত করতে নিরলসভাবে কাজ করছে পুলিশ: গাইবান্ধা পুলিশ সুপার গণপূর্তের প্রধান প্রকৌশলী পদ পেতে ২০ কোটি টাকার মিশনে মোসলেহ উদ্দীন ইলিয়টগঞ্জ-মুরাদনগর-বাঞ্ছারামপুর সড়কের কাজ দ্রুত শুরুর তাগিদ এমপি জাহাঙ্গীর আলম সরকারে মির্জাগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের ইফতার ও দোয়া অনুষ্ঠিত মির্জাগঞ্জে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতির দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে ঈদের আগে ব্যবসায়ীদের সব পুড়ে ছাই বান্দরবানের থানচিতে কৃষি ও সোনালী ব্যাংকে ডাকাতি দক্ষিণাঞ্চলের উন্নয়নে চীনের সহযোগিতা চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী

অপরুপ সৌন্দর্যমন্ডিত ছৈলারচর: সম্ভাবনাময় পর্যটন কেন্দ্র

আরিফুর রহমান সুজন :
  • আপলোডের সময় : শনিবার, ১৬ জুলাই, ২০২২
  • ৬১২৭ বার পঠিত

আরিফুর রহমান সুজন :

বিষখালী নদীর কোলঘেসে ঝালকাঠির জেলার কাঁঠালিয়া উপজেলায় সদর ইউনিয়নের হেতালবুনিয়া মৌজায় ৭০ একর জমি নিয়ে গড়ে উঠছে ব্যতিক্রমধমী ভাসমান পর্যটন কেন্দ্র ছৈলার চর।

জোয়ারের পানিতে পুরো চর ডুবে যায় আর ভাটায় সময় পানি নেমে যায়। ছৈলগাছে বিভিন্ন প্রজাতির পাখি যেমন- শালিক,ডাহুক, বকের আবাসস্থল তৈরি করছে।

তাছাড়া শীতের সময় বিভিন্ন প্রজাতির অতিথি পাখির কলোরবে মূখরিত হয় এই চর।ম্যানগ্রোভ জাতীয় ছৈলা গাছ ছাড়াও এখানে কেয়া, হোগল, রানা, এলি, মাদার, আরগুজিসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছের সমারোহ রয়েছে।

ছৈলা গাছের বৈজ্ঞানিক নাম ইউক্যালিপটাস (লাতিন:’Eucalyptus’) Myrtaceous পরিবারের একটি গণের নাম এটি মূলত একটি কাঠের গাছ যা প্রকৃতিগত ভাবে অষ্ট্রেলিয়ায় পাওয়া যায়।

যদিও এর আবহাওয়াগত অভিযোজন ক্ষমতার কারণে প্রায় সব মহাদেশেই দেখতে পাওয়া যায়।বাংলাদেশের দক্ষিণ অঞ্চলের নদীর চরে এ গাছ দেখা যায়। এ গাছ নদী ভাঙ্গন রেধে কার্যকর ভূমিকা রাখে। দীর্ঘ কয়েক বছর যাবত এটি শুধুমাএ ছৈলাগাছের বাগান হিসাবে পরিচিত ছিলো।২০১৫ সাল থেকে যোগাযোগ ব্যাবস্থা উন্নত হওয়ায় কাঠালিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুফল চন্দ্র গোলদার এ পর্যটন কেন্দ্রটি উন্নয়নের জন্য উদ্যোগি হন। তার একান্ত প্রচেষটায় একাধিক রেস্টহাউস ও অন্যন্যা স্থাপনা তৈরি হয়েছে এবং দেশিয় প্রজাতির বিভিন্ন গাছ লাগানো হচ্ছে। তাছাড়া, এখানে একটি লেক তৈরি করা হয়েছে যার নাম দেয়া হয়েছে ‘ ডিসি লেক ‘।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব সুফল চন্দ্র গোলদার বলেন, অনেক চেষ্টা করে এই দূর্গম চরে পর্যটকদের জন্য বিদ্যুৎ এর ব্যাবস্থা করা হয়েছে এবং নতুন রাস্তাঘাট নির্মান করা হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, পর্যটকদের নিরাপত্তা ও আরো সুযোগ -সুবিদা বাড়ানে গেলে এটি একটি ব্যাতিক্রমধর্মী পর্যটনকেন্দ্র হিসাবে গড়ে উঠবে এখান থেকে সরকার বিরাট অঙ্কের রাজস্ব পাবে।

১৫ জুলাই শুক্রবার ইংরেজি দৈনিক দি কান্ট্রি টুডে ও বিশেষায়িত নিউজ পোর্টাল বিজনেসনিউজ ২৪ বিডি. কম এর সম্পাদক হেমায়েত হোসেনের নেতৃত্বে সাংবাদিকদের একটি দল ছৈলার চর পরির্দশন করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ছিলেন কাঠালিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব সুফল চন্দ্র গোলদার, বেতাগী প্রেসক্লাবের সভাপতি সালাম সিদ্দিকী , সাধারণ সম্পাদক জনাব মহসিন খান, সহ-সভাপতি শামীম শিকদার, সাবেক সভাপতি সাইদুল ইসলাম মন্টু, সদস্য প্রভাষক আবুল বাসার খান ও সাংবাদিক আরিফ সুজন, এবং কাঠালিয়ার সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) এর সভাপতি ও ইওেফাক প্রতিনিধি আবদুল হালিম, কাঠালিয়া প্রেসক্লাবের সিনিয়ার সহ-সভাপতি ও সমকালের প্রতিনিধি ফারুক খান।

সাংবাদিকরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে ব্যতিক্রমী ও সম্ভাবনাময় এ পর্যটন কেন্দ্রের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে মতবিনিময় করেন। উল্লেখ্য, ইউ এন ও সুফল চন্দ্রের একান্ত প্রচেষ্টায় এটি পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে গড়ে উঠছে এবং বিভিন্ন পরিকল্পনা গ্রহন করা হয়েছে।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..