সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৪:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
তাড়াইলে ৪ গরু চোর গ্রেফতার, জব্দ গাড়িসহ ৬টি গরু পটুয়াখালীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী রেজাউল করিম সোয়েবের ইশতেহার ঘোষণা  রেড ক্রিসেন্টের প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা সাজানো: কর্মকর্তাদের মাঝে চাপা ক্ষোভ ঘূর্ণিঝড় রেমাল মোকাবিলায় প্রস্তুতি, ফায়ার সার্ভিস, ছুটি বাতিল : মনিরটিং সেল গঠন এমপি আনার খুনের তদন্তে ভারত যাবে গোয়েন্দা পুলিশ কোন দলের নেতাকর্মীকে জেলে পাঠানোর এজেন্ডা আমাদের নেই: ওবায়দুল কাদের সাকিব নট আউট ‘৭০০’ সরকার সকল ধর্মের বিশ্বাসীদের নিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে চায় : প্রধানমন্ত্রী ঢাকাবাসীকে সুন্দর জীবন উপহার দিতে কাজ করছে সরকার : প্রধানমন্ত্রী ঘূর্ণিঝড় রেমালের মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে সরকার : মহিববুর রহমান

ঝালকাঠিতে কর্মসংস্থান কর্মসূচির কাজে অনিয়ম

আমির হোসেন (ঝালকাঠি প্রতি‌নি‌ধি):
  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৯ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৫৮৩৪ বার পঠিত

ঝালকাঠির রাজাপুরে অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান কর্মসূচি (ইজিপিপি) তে ব্যপক অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বড়ইয়া ইউনিয়নের ৫ নাম্বার ওয়ার্ডের চল্লিশকাহনিয়া গ্রামের ইউনুস হাং বাড়ীর ব্রিজের উত্তর পাশের রাস্তা হতে সবুজের বাড়ী হয়ে মন্নাফ ফকিরের বাড়ী সংলগ্ন রাস্তা সংস্কার নামক প্রকল্পে এমন অভিযোগ পাওয়া যায়।

প্রকল্পে বরাদ্দকৃত ৪ লাখ ১৬ হাজার টাকায় ৩১,২০০ ঘনফুট রাস্তা সংস্কার করার কথা রয়েছে। কিন্তু যেই পরিমাণ কাজ করার কথা সেই পরিমান কাজ না করে টাকা ভাগাভাগি করার পায়তারা করার অভিযোগ উঠেছে প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে। এই সংস্কার কাজ হত দরিদ্রদের দ্বারা করানোর কথা থাকলেও নেই স্থানীয় হত দরিদ্ররা। ঝালকাঠির একজন মাটিকাটা ঠিকাদারকে দিয়ে লোক দেখানো কিছু কাজ করানো হচ্ছে। যার কারনে দরিদ্র শ্রমিকরা হচ্ছেন উপেক্ষিত। নেই শতকরা তেত্রিশভাগ নারী শ্রমিকও।

স্থানীয়রা এবং ওয়ার্ডের এক আওয়ামিলীগ নেতা জানান, প্রকল্পের সাথে জড়িত লোকজন হত দরিদ্র শ্রমিকের বদলে ঝালকাঠির ঠিকাদারের মাধ্যমে রাস্তা সংস্কার করার কারনে সরকারের সৎ উদ্দেশ্য ভেস্তে যেতে বসেছে। তারা নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করে সড়ক সংস্কারের নামে নামমাত্র কাজ করে নিজেদের লোকদের নামে একাউন্ট করে টাকা লুটপাটের আয়োজন করেছে।

প্রকল্প সভাপতি মাকসুদা বেগম জোসনা অনিয়মের ব্যাপারে বলেন, সব নিয়ম মানা সম্ভব না। তার পরেও কোনো অনিয়ম হয়নি। নিয়ম মেনেই সব কাজ করা হয়েছে। যারা অভিযোগ করেছে তাদের অভিযোগ একদমই মিথ্যা। স্থানীয়দের সুবিধার জন্যই রাস্তা করা হয়েছে। কাজ এখনো শেষ হয়নি, শেষ হলেই অভিযোগ কতটুকু সত্য তা দেখা যাবে।

প্রকল্প সংশ্লিষ্ট ইউপি সদস্য ও প্রকল্পের সদস্য সচিব মোঃ মাইনুল ইসলাম কবির জানায়, ব্যক্তিগত শত্রুতার কারনে এমন অভিযোগ দেয়া হয়েছে। রাজাপুরে আরো অনেক কাজ চলে। আমাদের কাজ নিয়ম অনুযায়ী করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে রাজাপুর উপজেলা বাস্তবায়ন কর্মকর্তা বলেন, রাজাপুরে অনেক প্রকল্প চলমান রয়েছে। আমি এই প্রকল্পে এখনো যাইনি তাই এবিষয়ে কিছু জানিনা। খোজ খবর নিয়ে অনিয়ম পেলে বিল বন্ধ সহ যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

এ ব্যাপারে ঝালকাঠি জেলা ত্রান ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা মোঃ আশ্রাফুল হক জানান, কোনো প্রকল্পে অনিয়ম হলে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..