মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
নাগেশ্বরীতে প্রাণী সম্পদ অফিসে টেকনিসিয়ান নিয়োগে অনিয়ম এডিসের লার্ভা পেলে জেল ও জরিমানা করা হবে: ডিএনসিসি মেয়র জলবায়ু অভিযোজনে সফলতার জন্য বিশ্বের ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস জরুরি : পরিবেশমন্ত্রী কারিগরি বোর্ডের চেয়ারম্যানকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ডিবি আওয়ামী লীগের শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ স্থগিত প্রধানমন্ত্রীর থাইল্যান্ড সফরকালে ৫টি দলিল স্বাক্ষর ও বহুমুখী সহযোগিতার সম্ভাবনা : পররাষ্ট্রমন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশ জলবায়ু উন্নয়ন অংশীদারিত্ব গঠন: প্রধানমন্ত্রী যুদ্ধ ব্যয়ের অর্থ জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় ব্যবহার হলে বিশ্ব রক্ষা পেত: প্রধানমন্ত্রী কাতারের আমীরকে লাল গালিচা অভ্যর্থনা দেয়া হয় ঢাকা বিমানবন্দরে তাড়াইলে তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন- হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

মির্জাগঞ্জ উপজেলাকে ভূমিহীন মুক্ত ঘোষণা

জিয়াউর রহমান (নিজস্ব প্রতিবেদক):
  • আপলোডের সময় : শুক্রবার, ৩ মার্চ, ২০২৩
  • ৫৮৭৫ বার পঠিত

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলাকে ভূমিহীন মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ( ২ মার্চ) সকাল ১০ টায় উপজেলা অডিটোরিয়াম মিলনায়তনে উপজেলাকে ভূমিহীন মুক্ত ঘোষণা করার লক্ষ্যে, উপজেলার সুধীজন, জনপ্রতিনিধি, সাংবাদিক ও উপকারভোগীদের নিয়ে যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় সভাপতি এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইয়েমা হাসান বলেন, ইতোপূর্বে উপকারভোগীদের যাচাই-বাচাই এর জন্য উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির সভার সিদ্ধান্তের আলোকে প্রতিটি ইউনিয়নে মাইকিং করা হয়, ফেইজবুক, উপজেলা প্রশাসনের পেইজ এবং ইউনিয়ন পরিষদে নোটিশ টানিয়ে দেওয়া হয় । তদপ্রেক্ষিতে প্রাপ্ত আবেদন যাচাই বাছাই করে ৩৭৩ জনকে পুনর্বাসন করা হয়েছে। সারাদেশকে ভূমিহীন মুক্ত করেই অর্থাৎ ‘ক’ শ্রেণির বরাদ্ধ শেষ করে ‘খ’ শ্রেনির জন্য গৃহ প্রদান করা হবে মর্মে সর্বশেষ অনুষ্ঠিত ভিডিও কনফারেন্স ও বরিশাল বিভাগের একটি প্রশিক্ষণ কর্মশালায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মূখ্য সচিব মহোদয় নিশ্চিত করেছেন ।

সভায় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানগণ অভিমত ব্যক্ত করেন যে, প্রত্যেকেরই কিছু না কিছু উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া জমি আছে কিন্তু এক সাথে একই ঘরে থাকে। সেক্ষেত্রে বাবা জীবিত থাকলে তারা নিজেদের ভূমিহীন হিসাবে দাবী করে থাকে। সেক্ষেত্রে ‘খ’ শ্রেণির উপকারভোগীদের এখন থেকে ঘর দিলে সেটি অনেক বেশি ফলপ্রসু হতো ও উপকার হতো। দূরে যে সব আশ্রয়নের ব্যারাক আছে সেখানে জীবন জীবিকার জন্য কেউ যেতে চান না।

সভায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গাজী আতাহার উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, আমরা এই তালিকা সম্পর্কে অবগত আছি। আমাদের কাছে যারা আসে খোজ নিয়া দেখা যায় তাদের কিছু না কিছু জমি রয়েছে তাই আমার মনে হয় এই ধরনের লোকদের ‘খ’ শ্রেণি ভূক্ত করে পূর্নবাসন করার উদ্যোগ সরকার এখন নিতে পারে। উপজেলা চেয়ারম্যান খান মো. আবু বকর সিদ্দকী বলেন, পটুয়াখালী জেলার সুযোগ্য জেলা প্রশাসক মহোদয় নিজে এবং তাঁর কার্যালয়ের নিবার্হী ম্যাজিস্ট্রেটগন সাথে নিয়ে প্রত্যেক বাড়িতে গিয়ে এ তালিকা যাচাই করেছেন তাই এ তালিকাটি নিয়ে কারও কোন সংশয় থাকতে পারে না এবং এরপর এ উপজেলায় আর কোন ভূমিহীন থাকতে পারেনা। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মহোদয়ের নিকট এই উপজেলাকে ভূমিহীন ঘোষনা প্রদানের জন্য আজকের এই সভার মাধ্যমে সানুগ্রহ অনুমতি প্রার্থনা করছি। সেই সাথে এখানে যাদের জমি আছে কিন্তু ঘর নাই তাদের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনেরও অনুরোধ করছি। সভায় মির্জাগঞ্জ উপজেলায় কোন ‘ক’ শ্রেনির ভূমিহীন নেই মর্মে সকল সদস্য মতামত দেন এবং মির্জাগঞ্জ উপজেলাকে ‘ভূমিহীন ও গৃহহীন ’ মুক্ত ঘোষনা করার প্রস্তাবকে সানন্দ এবং আগ্রহ চিত্তে সকল পর্যায়ের সদস্যবৃন্দ গ্রহন করেন।

সকলেই আশাবাদী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক এই মির্জাগঞ্জ উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষনা করার প্রারম্ভিক পর্যায় শুরু করা যেতে পারে। সভার সভাপতি, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের ইউনিয়ন পর্যায়ে সকল সভা-সমাবেশে এই বিষয়টি নিয়ে প্রচারণা চালাতে অনুরোধ করেন এবং উপজেলা চেয়ারম্যান মির্জাগঞ্জ উপজেলাকে ভূমিহীন মুক্ত ঘোষনা করেন ।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..