মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
নাগেশ্বরীতে প্রাণী সম্পদ অফিসে টেকনিসিয়ান নিয়োগে অনিয়ম এডিসের লার্ভা পেলে জেল ও জরিমানা করা হবে: ডিএনসিসি মেয়র জলবায়ু অভিযোজনে সফলতার জন্য বিশ্বের ঐক্যবদ্ধ প্রয়াস জরুরি : পরিবেশমন্ত্রী কারিগরি বোর্ডের চেয়ারম্যানকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে ডিবি আওয়ামী লীগের শান্তি ও উন্নয়ন সমাবেশ স্থগিত প্রধানমন্ত্রীর থাইল্যান্ড সফরকালে ৫টি দলিল স্বাক্ষর ও বহুমুখী সহযোগিতার সম্ভাবনা : পররাষ্ট্রমন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশ জলবায়ু উন্নয়ন অংশীদারিত্ব গঠন: প্রধানমন্ত্রী যুদ্ধ ব্যয়ের অর্থ জলবায়ুর প্রভাব মোকাবেলায় ব্যবহার হলে বিশ্ব রক্ষা পেত: প্রধানমন্ত্রী কাতারের আমীরকে লাল গালিচা অভ্যর্থনা দেয়া হয় ঢাকা বিমানবন্দরে তাড়াইলে তীব্র তাপদাহে অতিষ্ঠ জনজীবন- হাসপাতালে বাড়ছে রোগী

কাদিয়ানীদের অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে: সৈয়দ আহমদ শফী আশরাফী

নিজস্ব প্রতিবেদক:
  • আপলোডের সময় : মঙ্গলবার, ১৪ মার্চ, ২০২৩
  • ৫৯১৫ বার পঠিত
হযরত মুহাম্মদ সা. শেষ ও সর্বশ্রেষ্ঠ নবী। তাঁর পর আর কোন নবী আসবে না। এটা হলো সকল মুসলমানদের আকিদা ও বিশ্বাস। যদি কেউ নবী মুহাম্মদ সা. কে শেষ নবী না মানে, অন্য কাউকে নবী মানে তাহলে কুরআন সুন্নাহ ইজমা কিয়াস অনুযায়ী সে কাফের। বুখারী ও মুসলিম শরীফের হাদিসে স্বয়ং হযরত মুহাম্মদ সা. বলেন- আমি সর্বশেষ নবী। আমার পর আর কোন নবী নাই।
সুতরাং কাদিয়ানী সম্প্রদায় মিস্টার গোলাম আহমদ কাদিয়ানীকে নবী মানে। ফলে তারা ইসলাম থেকে খারিজ হয়ে গেছে। তাই, কাদিয়ানীদেরকে অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে।
গত ১০ মার্চ ঢাকার লালবাগে অবস্থিত মদিনাতুল উলূম দারুস সুন্নাহ মাদরাসার উদ্যোগে আয়োজিত বার্ষিক ওয়াজ ও দোয়া মাহফিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ন্যাশনাল সবুজ বাংলা পার্টি’র মহাসচিব সৈয়দ আহমদ শফী আশরাফী এসব কথা বলেন।
উক্ত ওয়াজ ও দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন ঐতিহ্যবাহী লালবাগ মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মুহিব্বুল্লাহ সাহেব, প্রধান বক্তা ছিলেন মাওলানা এহতেরামুল হক কাসেমী পীর সাহেব উজানী, মুফতী ফয়জুল্লাহ সাহেব মঈনে মুহতামিম লালবাগ মাদরাসা , মাওলানা মুফাজ্জল হোসাইন সাহেব শিক্ষাসচিব যাত্রাবাড়ি বড় মাদরাসা, প্রধান অতিথি ছিলেন আলহাজ্ব আব্দুর রহমান চেয়ারম্যান মহানগর কমপ্লেক্স, প্রধান মেহমান ছিলেন আলহাজ্ব মুকাদ্দেস হোসেন জাহিদ কাউন্সিলর ২৪ নং ওয়ার্ড।
উক্ত মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মুফতী আল আমিন মাসউদ বিন আলম মাহমুদী সাহেবের দিকনির্দেশনায় মাহফিল পরিচালনা করেন জনাব আলম হাওলাদার ও হাফেজ মাসুম বিল্লাহ।
ন্যাশনাল সবুজ বাংলা পার্টি’র মহাসচিব সৈয়দ আহমদ শফী আশরাফী আরো বলেন- বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কাদিয়ানীদেরকে কাফের বা অমুসলিম ঘোষণা করা হয়েছে।  বাংলাদেশে তারা শান্তিপূর্ণভাবে তাদের ধর্মকর্ম পালন করুক আমাদের কোন আপত্তি নাই। কিন্তু সরলমনা মুসলমানদেরকে বিভ্রান্ত করলে তা মেনে নেওয়া হবে না। ইসলামের নামে, নবুওয়াতের নামে ধোঁকা দিলে প্রতিহত করা হবে। সালানা জলসার নামে প্রতিবছর অনুষ্ঠানের আয়োজন করে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করে। পঞ্চগড়ের মুসলিম তাওহিদী জনতা ফুঁসে ওঠে। ফলে, অপ্রিতিকর পরিস্থিতি জন্ম দেয়, এতে ২ জন মানুষ নিহত হয়। আগামীতে আহমদিয়া মুসলিম জামাত তথা কাদিয়ানীরা যেন আর কোন জলসার আয়োজন করতে না পারে সে বিষয়ে সরকারকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..