মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাঙ্গাবালী উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি আরিফ, সম্পাদক জামিল পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি প্রধান আসামি গ্রেফতার মুরাদনগরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্লাস্টিকের বেঞ্চ সরবরাহ দা-বঁটি-ছুরি-চাপাতি বানাতে ব্যস্ত কামার শিল্পী, টুংটাং শব্দে মুখরিত তাড়াইল মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মিরপুর সাইন্স কলেজের ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে : ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় করার ব্যাপারে আশাবাদী মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মির্জাগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান আবু বকর, ভা: চেয়ারম্যান শাওন মহিলা ভা: চেয়ারম্যান হাসিনা নির্বাচিত

স্বামীর নগ্ন ছবি প্রকাশ স্ত্রীর বিরুদ্ধে স্বামীর মামলা

বরগুনা প্রতিনিধি:
  • আপলোডের সময় : সোমবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২৩
  • ৫৮৪২ বার পঠিত

গোপনে স্বামীর নগ্ন ছবি মোবাইলে ধারণ করে ব্লক মেইল, পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে মামলা করেছে ভুক্তভোগী স্বামী।

মামলার দরখাস্তটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) পটুয়াখালীকে তদন্তের আদেশ দিয়েছেন আদালত। গত ২৩ শে ফেব্রুয়ারী তারিখ (বৃহস্পতিবার ) সাইবার অপরাধের ২৫,২৬,২৯,৩৪,৩৫ ধারায়) ঢাকা সাইবার ট্রাইব্যুনাল আদালতে বরগুনা সদর উপজেলার ৪নং কেওড়াবুনিয়া ইউনিয়নের আয়লা আদাবাড়িয়া গ্রামের ওসমান গণি মৃধার ছেলে নুর হোসেন ইমাম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করে।

মামলার একমাত্র আসামী হলেন পাথরঘাটা উপজেলার কাকচিড়া ইউনিয়নের রুপধন গ্রামের মোঃ কামাল হোসেনের মেয়ে ও বাদী নুর হোসেন ইমামের স্ত্রী মোসাঃ নাসরিন (রুহি)।

মামলার বাদী নুর হোসেন ইমাম বলেন, আমার স্ত্রী নাসরিন রুহি গোপনে আমার নগ্ন ছবি মোবাইল ফোনে ধারণ করে আমাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্নভাবে ব্লাকমেইল করে আসছিলো। সর্বশেষ আমার স্ত্রী আমার নিকট পাঁচ লক্ষ টাকা দাবী করে, আমি এ টাকা দিতে অস্বীকার করলে আমার নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেজবুকে) ছড়িয়ে দেয়।

পরে আমি বিভিন্ন লোকের কাছ থেকে স্ক্রিনশট সংগ্রহ করে ন্যায় বিচারের আশায় আদলতে মামলা দায়ের করেছি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমার নগ্ন ছবি ছড়িয়ে দিয়ে আমার মান-সম্মানেরহানী করেছে, যা সাইবার ক্রাইম অপরাধ।

এ বিষয়ে মামলার আসামির সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাকে মুঠোফোনে পাওয়া যায় নি। পুলিশ ব্যুরো ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) পটুয়াখালীর কর্মকর্তা সুজন দাস বলেন মামলা তদন্তধিন আছে। নুর হোসেন ইমাম আরো বলেন রুহি হিসেবে সবাই যাকে চিনে আসলে এটা ওর ছদ্মনাম কখনো রুহি কখনো মোহনা,মুক্তা,নাদিয়া,আসল নাম নাসরিন ওর সাথে আমার পরিচয় হয় ফেসবুকে তারপর বন্ধুত্ব তারপর প্রেম অতপর বিয়ে পর্যন্ত গড়ায়।আমি আমার মায়ের কথায় বিবাহ করি এবং রুহি বলেছিলো ওর একটা পরিচয় দরকার মানুষ খারাপ বলে এরকম প্রেমের সম্পর্ককে, আমি ও রাজি ছিলাম কিন্তু আমি মানুষটাকে ভালবেসেছিলাম।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..