রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৩৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
প্রতিবন্ধীদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের দায়িত্ব : পরিকল্পনামন্ত্রী মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ড. মোমেনের বৈঠক যুদ্ধ বন্ধ করুন : জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী সব সময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে সৌদি আরব : রাষ্ট্রদূত আল দুহাইলান নলছিটিতে গলায় ফাঁস দিয়ে যুবকের আত্মহত্যা ভোলার ২৫০ শয্যা হাসপাতালের আধুনিক ভবন নির্মানের ৩ বছরেও চালু হয়নি পটুয়াখালীতে ইউপি সচিবের দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশে স্থানীয় সরকার প্রকৌশলীর তদন্ত বেতাগীতে সরকারি গাছ কাটতে বাঁধা দেয়ায় এক যুবককে কুপিয়ে আহত ভোলায় দেশি হাঁসের কালো ডিম পাড়া নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি আপনজন ভাবনাঃ এস এম আক্তারুজ্জামান, ডিআইজি বরিশাল রেঞ্জ

আমি লুকিয়ে নেই, আমি কাউকে ভয় পাই না : জেলেনস্কি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
  • আপলোডের সময় : মঙ্গলবার, ৮ মার্চ, ২০২২
  • ৪১ বার পঠিত
ফাইল ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

রুশ বাহিনীর আক্রমণের ১২তম দিনে নিজের কার্যালয় থেকে ভিডিওবার্তা দিয়েছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তিনি বলেছেন, ‘আমি লুকিয়ে নেই এবং কাউকে ভয় পাই না। এ যুদ্ধে জয়ী না হওয়া পর্যন্ত কোথাও যাচ্ছি না।’

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রাশিয়ার ‘সেনা অভিযান’ শুরুর পর এবারই প্রথম রাজধানী কিয়েভে নিজের কার্যালয় থেকে ভিডিওবার্তা দিলেন জেলেনস্কি। সংবাদমাধ্যম সিএনএনের এক প্রতিবেদনে আজ মঙ্গলবার এ খবর জানানো হয়েছে।

নয় মিনিটের এ ভিডিওবার্তায় জেলেনস্কি আরও বলেন, ‘আমরা সবাই ময়দানে রয়েছি, সবাই কাজ করছি। যার যেখানে থাকা প্রয়োজন, প্রত্যেকেই সেখানে রয়েছি। আমি কিয়েভে আছি। আমার দল আমার সঙ্গে রয়েছে। প্রতিরক্ষা বাহিনী মাঠে রয়েছে। চাকরিজীবীরা নিজেদের অবস্থানে রয়েছেন। আমাদের বীরেরা—চিকিৎসক, উদ্ধারকারী, পরিবহণকারী, কূটনীতিক, সাংবাদিক সবাই রয়েছে।

জেলেনস্কি আরও বলেন, ‘আমরা সবাই বিজয়ের জন্য অবদান রাখছি, যেটি অবশ্যই অর্জন করা হবে।’

এর আগে গতকাল স্থানীয় সময় সকালেও ইউক্রেনে বোমা হামলার অভিযোগ এনে প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেন, ‘আমরা তোমাদের ক্ষমা করব না। আমরা কোনো কিছুই ভুলব না।’

রোববার রাতে জেলেনস্কি চার্চে মৃতদের আত্মার শান্তি কামনায় দেওয়া এক বক্তব্যে বলেন, ‘হাজার হাজার মানুষ আজ বিনা অপরাধে রাশিয়ার আক্রমণে আহত হয়েছে। ঘর ছেড়েছে লক্ষাধিক মানুষ। এ অপরাধের দায়ভার সব রাশিয়ার। তাদের এ অপরাধ আমরা কখনও ভুলব না। আজ বা কাল অথবা যেকোনো দিন তাদের এ অপরাধের শাস্তি ভোগ করতে হবে।’

জেলেনস্কি বলেন, ‘পুতিনবাহিনী বেসামরিক লোকদের নিরাপদ জায়গায় সরে যাওয়ার জন্য সাময়িক অস্ত্রবিরতি ঘোষণা করে। তাদের সে কথায় বিশ্বাস করে হাজার হাজার ইউক্রেনীয় নিরাপদ স্থানে যাওয়া শুরু করে। কিন্তু, পুতিনবাহিনী তাদের কথা না রেখে নিরপরাধ বেসামরিকদের ওপর বোমা হামলা চালায়।’

এর আগে রাজধানী কিয়েভসহ খারকিভ, মারিওপোল ও সুমি শহরে সাময়িক অস্ত্রবিরতির ঘোষণা দিয়েছিল রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। বেসামরিক নাগরিকদের এলাকা ছাড়ার সুযোগ দিতে মানবিক কারণে এ ঘোষণা দেওয়া হয় বলে জানানো হয়েছিল।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..