বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই ২০২৪, ১১:৩৬ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
সড়ক ও জনপথ কর্মকর্তার ব্যাংকে শত কোটি টাকার লেনদেন হরিরামপুরে ৪ ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা অনিয়ম-দুর্নীতির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা অর্জনের অভিযোগ ডিপিএইচই’র প্রাক্কলনিক আনোয়ারের বিরুদ্ধে বাংলাদেশের উন্নয়নে চীনের সমর্থন অব্যাহত রাখার আশ্বাস দিলেন শি জিনপিং বেনজীর-মতিউর-এর কুশপুতুল দাহ করায় হুমকি : উদ্বেগ প্রকাশ কোটা সমস্যার সমাধান করার দাবি জাতীয় শিক্ষাধারার হরিরামপুরে পদ্মা তীর রক্ষা বাঁধে ধস, জনমনে আতংক মুরাদনগর শ্রীকাইলে ক্যাপ্টেন নরেন্দ্রনাথ দত্ত স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে হুরোয়া চ্যাম্পিয়ন তাড়াইলের কথিত পীর লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে ইউএনও বরাবর লিখিত অভিযোগ বর্ষার পানি বৃদ্ধির সঙ্গে বাড়ছে নৌকার চাহিদা

শনিবার চালু হচ্ছে খুলনা-কলকাতা ডেইলি ট্রেন

রিপোর্টারের নাম
  • আপলোডের সময় : শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০১৭
  • ৬৫৪৭ বার পঠিত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে বাংলাদেশের খুলনা ও ভারতের কলকাতা শহরের মধ্যে দৈনিক একটি ট্রেন পরিষেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হতে চলেছে বলে বিবিসি জানতে পেরেছে।
সব ঠিকঠাক থাকলে শনিবার দিল্লি থেকেই দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীরা এই ট্রেনের যাত্রা শুরুর সংকেত দেবেন।
দিল্লিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলি বিবিসিকে জানিয়েছেন, এই ট্রেন চালু হলে খুলনার যাত্রীরা দিনে দিনে কলকাতা গিয়ে কাজ সেরে আবার সে দিনেই ঘরে ফিরে আসতে পারবেন বলে তারা আশা করছেন।
সাতচল্লিশের দেশভাগের আগে কলকাতায় কয়লার ব্যবসা করতেন খুলনা শহরের কাছে দৌলতপুরের বাসিন্দা আফসার আলি।
তার নাতিনাতনিরাও নানার মুখে গল্প শুনেছেন, রূপসা নদীর কাছে রেল স্টেশন থেকে তিনি কলকাতার শেয়ালদাগামী ট্রেনে চাপতেন। আর সারাদিন কাজের শেষে ফিরে আসতেন সন্ধেবেলার ট্রেনে।
ভারত ও বাংলাদেশ সরকারের পরিকল্পনা ঠিকঠাক এগোলে সেই খুলনা থেকে কলকাতা ‘ডেলি প্যাসেঞ্জারি’ করার স্বপ্ন আবারও সত্যি হতে চলেছে।
বস্তুত ১৯৬৫ সাল পর্যন্ত ভারত ও তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের মধ্যে যতগুলো রেল সংযোগ ছিল তার সবই একে একে চালু করা হচ্ছে বলে বিবিসিকে জানিয়েছেন ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার সৈয়দ মোয়াজ্জেম আলি।
তিনি বলেন, “আমরা চেষ্টা করছি আগামী ৮ই এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী হাসিনা যখন দিল্লিতে থাকছেন, তখনই যাতে এই ট্রেন পরিষেবা উদ্বোধন করা যায়। ১৯৬৫ পর্যন্ত এই ট্রেন সার্ভিস চালু ছিল, ফলে এখন আবার কলকাতা-খুলনার মধ্যে ট্রেন সংযোগ স্থাপিত হলে প্রায় বাহান্ন বছর পর আবার এটা চালু হবে।”

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..