শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০৫:৩৩ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি প্রধান আসামি গ্রেফতার মুরাদনগরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্লাস্টিকের বেঞ্চ সরবরাহ দা-বঁটি-ছুরি-চাপাতি বানাতে ব্যস্ত কামার শিল্পী, টুংটাং শব্দে মুখরিত তাড়াইল মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মিরপুর সাইন্স কলেজের ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে : ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় করার ব্যাপারে আশাবাদী মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মির্জাগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান আবু বকর, ভা: চেয়ারম্যান শাওন মহিলা ভা: চেয়ারম্যান হাসিনা নির্বাচিত পটুয়াখালী সদর উপজেলা পরিষদেের সকল বিজয়ীরা নতুন মুখ

মির্জাগঞ্জের ইউ,পি সচিব পরকীয়া প্রেমিকার হত্যাকাণ্ডে পুলিশ হেফাজতে

জিয়াউর রহমান মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:
  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৩ মে, ২০২৪
  • ৫৭৬৭ বার পঠিত

জিয়াউর রহমান মির্জাগঞ্জ (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি:

রাত আনুমানিক ১০ ঘটিকায় পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে মূমর্ষ অবস্থায় এক নারীকে সড়ক দূর্ঘটনায় আহত বলে এম্বুলেন্স যোগে নিয়ে এসে ভর্তি করা হয় ।হাসপাতালে আনার কিছুখন পরেই মৃত্যু হয় ঐ নারীর।

এসময়ে হাসপাতালে নিহত নারীকে নিয়ে আসা ব্যাক্তিকে উপস্থিত হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও অনন্য রোগির স্বজনেরা এবং ‍উপস্থিত গনমাধ্যম কর্মীরা জিজ্ঞাসাবাদ করলে বিভিন্ন প্রকার তথ্য দিতে শুরু করেন ঐ ব্যাক্তি, বিষয়টি সন্দেহ হলে পুলিশকে খবর দেয়া হয় । গনমাধ্যমের বিভিন্ন প্রশ্নের ফলে এক সময় জানা যায় নিহত নারীর পরিচয় । জানা যায়,নিহত ঐ নারীর নাম মোসাঃ শেফা আক্তার বয়স আনুমানিক (২০) বছর তিনি পটুয়াখালীর গাজী মনিবুর রহমান নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থী । লেখাপড়ার জন্য পটুয়াখালী শহরের একটি ম্যাচ বাসায় কয়েকজন বান্ধবীরা মিলে বাসা ভাড়া করে থাকতেন। এবং নিহত মোসাঃ শেফা আক্তারকে নিয়ে আসা ব্যাক্তি মোঃ হাচনাত টিটু তারা দুজনে প্রেমিক প্রেমিকা ।

প্রাপ্য তথ্য ভিত্তিতে হাসপাতাল কর্তবর্ত ব্যাক্তিরা গাজী মনিবুর রহমান নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আসলে তারা নিহত নারীকে তাদের সহপাঠি বলে সনাক্ত করেন এবং নিহত শেফা আক্তারের পরিবারকে খবর দেন ।

শেফা আক্তারের সহপাঠি ও ম্যাচ বাসার বান্দবীদের কাছ থেকে জানা য়ায়, শেফা গতকাল সন্ধ্যা ৬ টায় অন্য এক জন বান্ধবীর সাথে দেখা করতে যাচ্ছে কিছুক্ষণ পরে ফিরে আসবো বলে বেরিয়ে যায়। মূলত নিহত শেফা আক্তার তার প্রেমিক বর্তমানে মির্জাগঞ্জ উপজেলার কাকড়াবুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সচিব মোঃ হাচনাত টিটুর সাথে মোটরসাইকেলে শাখারিয়া বাস স্ট্যান্ডের দিকে ঘুরতে জান। পরে রাত আনুমানিক সাড়ে নয়টায় মূমর্স আবস্থায় পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে আসা হয় শেফা আক্তারকে ।

খোঁজ নিয়ে জানা যায় প্রেমিক মোঃ হাচনাত টিটু পটুয়াখালী জেলার দুমকি উপজেলা পাঙ্গাসিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড নলদোয়ানী মাধ্যমিক বিদ্যালয় এলাকার মৃত হাবিব শিকদারের ছেলে । টিটু বর্তমানে মির্জাগঞ্জ উপজেলার কাকড়াবুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সচিব পদে নিয়োজিত আছেন। এবং তিনি বিবাহিত বর্তমানে একটি সন্তানের পিতা।

সার্বিক বিষয়ে রাতেই পুলিশ প্রেমিক টিটুকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ এর জন্য হেফাজতে নেওয়া হয়েছিল।

এ বিষয়ে পটুয়াখালী সদর থানার অফিসার্স ইনচার্জ এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা টিটু কে থানা হেফাজতে নিয়েছি। প্রাথমিকভাবে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবো, পরবর্তীতে তদন্ত সাপেক্ষে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..