মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ০৪:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
দৈনিক জনকন্ঠে ভূল সংবাদ পরিবেশন করায় ব্যবসায়ীর সংবাদ সম্মেলন সরকারের সময়োচিত উদ্যোগ বাস্তবায়নে পুলিশ জনবান্ধব বাহিনীতে পরিণত হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে সমৃদ্ধ ও নিরাপদে রাখতে পুলিশ সচেষ্ট থাকবে: রাষ্ট্রপতি রাফাহতে ইসরায়েলের হামলা হবে গাজার সাহায্যেও ‘কফিনে চূড়ান্ত পেরেক’ : জাতিসংঘ প্রধান অমর একুশে বইমেলার ২৬তম দিনে নতুন বই এসেছে ২৪৬টি বাংলাদেশ ফিলিস্তিনের নিপীড়িত জনগণের পাশে আছে : তথ্য প্রতিমন্ত্রী বিএনপিকে ভুলের খেসারত দিতে হবে : ওবায়দুল কাদের দৃষ্টিনন্দন নগরী পটুয়াখালী এখন দর্শনার্থীদের আকর্ষণ লিবিয়া থেকে আরো ১৪৪ জন অনিয়মিত বাংলাদেশী দেশে ফিরেছেন স্বাস্থ্যসেবা বিকেন্দ্রীকরণ শুরু হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার ‘সহজ’ ভিসা পাচ্ছেন ৫০ হাজার অভিবাসন প্রত্যাশী

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপলোডের সময় : মঙ্গলবার, ২১ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৫৯০৮ বার পঠিত

করোনা ভাইরাসজনিত মহামারির কারণে বিশ্বজুড়ে আমেরিকান কনস্যুলেট ও দূতাবাসগুলোতে ভিসা ইস্যু করার ক্ষেত্রে যে জটিলতার সৃষ্টি হয়েছিল তা দ্রুত সমাধানের প্রদক্ষেপ নিয়েছেন ইউএস ডিপার্টমেন্ট অফ স্টেট। এর ফলে সহজেই যুক্তরাষ্ট্রে আসার ভিসা পাচ্ছেন ৫০ হাজার অভিবাসন প্রত্যাশী।

এসব ইমিগ্রান্ট ভিসাপ্রার্থীর ইন্টারভিউয়ের জন্য কনস্যুলেট বা দূতাবাসে উপস্থিত হওয়ার আবশ্যকীয়তা সাময়িকভাবে প্রত্যাহার করার কথা ঘোষণা করেছে। অতএব যাদের ইমিগ্রান্ট ভিসার আবেদন গত প্রায় দুই বছর আগে থেকে বিবেচনাধীন রয়েছে ক্ষেত্রবিশেষে তাদের ভিসা পাওয়ার জন্য আপাতত ব্যক্তিগত হাজিরার প্রয়োজন পড়বে না। তবে এ ব্যবস্থা নিতান্তই সাময়িক। ইমিগ্রান্ট ভিসার আবেদনের জট হ্রাস পেলে পুনরায় আবেদনকারীদের প্রচলিত নিয়মেই ইন্টারভিউয়ে উপস্থিত হওয়ার জন্য কনস্যুলার অফিস বা দূতাবাসে যেতে হবে। গত সোমবার ফেডারেল রেজিস্টারে এ ঘোষণা প্রকাশ করা হয়েছে।

ইমিগ্রান্ট ভিসার জন্য আবেদনকারীদের ইন্টারভিউয়ের সাময়িক প্রত্যাহারের এই আদেশ ২০২৩ সালের ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত বলবৎ থাকবে বলে জানান হয়েছে। এ বিধিতে উল্লেখ করা হয়েছে যে কোভিড ১৯ এর কারণে যেসব ভিসা আবেদনকারী কনস্যুলেট বা দূতাবাসে উপস্থিত হয়ে ইন্টারভিউয়ে উপস্থিত হতে অসমর্থ এবং যাদেরকে অবশ্যই “সুনির্দিষ্ট সময়-সীমিত” (স্পেসিফিক টাইম-লিমিটেড ক্রাইটেরিয়া) মানদণ্ড পূরণ করবেন শুধু তাদের ক্ষেত্রেই ব্যক্তিগত ইন্টারভিউ এর প্রয়োজন প্রত্যাহার করা হবে। ভিসা ইস্যু করার পর ভিসা লাভকারীকে সর্বোচ্চ ছয় মাসের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে আসতে হবে। ডিপার্টমেন্ট অফ হোমল্যান্ড সিকিউরিটির কোন অফিসার যদি তাকে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ অনুমোদন করেন, তাহলে ইমিগ্রান্ট ভিসা লাভকারী সংশ্লিষ্ট বিদেশি যুক্তরাষ্ট্রের স্থায়ী বাসিন্দায় পরিণত হবেন।

কোভিড ১৯ ছড়িয়ে পড়ায় সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রে জাতীয় জরুরী অবস্থা ঘোষণা করেন, যার ফলে ইমিগ্রেশন বিষয়ক অনেক ঘোষণা আসে, যা বিদেশি বা নন-সিটিজেনদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ ব্যাহত করে। ডিপার্টমেন্ট অফ স্টেট যুক্তরাষ্ট্রের কনস্যুলেট ও দূতাবাসগুলোতে নিয়মিত ভিসা সার্ভিস সাময়িকভাবে স্থগিত রাখে এবং যখন পুনরায় ভিসা ইস্যু করা শুরু হয়, তখনো তা ছিল অত্যন্ত মন্থর। ফলে বহু ভিসা আবেদন সিদ্ধান্তহীন অবস্থায় পড়ে থাকে। নতুন ব্যবস্থায় ভিসা জট কিছুটা হ্রাস পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছে স্টেট ডিপার্টমেন্ট।

যেসব ভিসা আবেদনকারীকে ইন্টারভিউয়ের মুখোমুখি হতে হবে না এবং কনস্যুলার অফিসারের কাছে ব্যক্তিগতভাবে উপস্থিত হয়ে শপথ নিতে হবে না স্টেট ডিপার্টমেন্ট সে সম্পর্কিত শর্তবলী উল্লেখ করে। তারা হচ্ছেন: যাদের ইমিগ্রান্ট ভিসা ২০১৯ সালের ৪ আগস্ট অথবা এই তারিখের পর ইস্যু করা হয়েছে; যিনি ইমিগ্রান্ট ভিসা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে আসেননি; যিনি ইমিগ্রান্ট ভিসার লাভের যোগ্য ইত্যাদি। স্টেট ডিপার্টমেন্ট উল্লেখ করেছেন যে ২০১৯ সালে ৪ আগস্ট থেকে ২০২১ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সময়ে প্রায় ৪৯,০০০ বিদেশিকে ইমিগ্রান্ট ভিসা প্রদান করা হয়েছে। কিন্তু ১১,০০০ এর অধিক ভিসার মেয়াদ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের আগেই শেষ হয়েছে। নতুন ঘোষণার সঙ্গে যেসব আবেদনকারীর অবস্থা সামঞ্জস্যপূর্ণ হয় বা যাদেরকে ইতিপূর্বে ভিসা দেওয়া হয়েছিল তাদের নিজেদের অবস্থা জানার জন্য কনস্যুলার অফিসে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..