বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ওরা বলে সংবিধান ছুড়ে ফেলে দিবে!: এ্যাড. আফজাল মির্জাগঞ্জের রোজ গার্ডেন সঞ্চয় ও ঋণদান সম: সমিতির সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত অল্প ভোটে হেরে গেলেন হিরো আলম আইএমএফের ঋণ অনুমোদন অর্থনীতির জন্য স্বস্তি : ডিসিসিআই বইমেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী প্যালেষ্টাইন টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজে নবীন বরণ অনুষ্ঠিত মুরাদনগরে অধ্যাপক আবদুল মজিদ কলেজ’র নবীন বরণ অনুষ্ঠিত কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে ক্লু-লেস অটোচালক রাসেদ হত্যার রহস্য উদঘাটন: খুনি গ্রেফতার যে নেতা আন্দোলনে রাজপথে থাকবে না তাকে অব্যাহতি দেয়া হবে: পটুয়াখালী জেলা বিএনপি মির্জাগঞ্জে বিয়ের দাবিতে অনশণ করা সেই মারিয়া পুলিশ হেফাজতে

শেষ কর্ম দিবসে ভাল বাসায় সিক্ত বেতাগী উপজেলা শিক্ষা অফিসার

সাইদুল ইসলাম মন্টু (বিশেষ প্রতিবেদক)
  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৫৮৪২ বার পঠিত

শেষ কর্মদিবসেও ভালবাসায় সিক্ত হয়েছেন বেতাগী উপজেলা শিক্ষা অফিসার একজন সাদা মনের মানুষ মো: জাহাঙ্গীর আলম। ৩০ ডিসেম্বর তার কর্মজীবণের শেষদিনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা বিদায়ী তাদের প্রিয় কর্মকর্তাকে দেখার জন্য অফিসে ভীড় জমিয়েছেন। কুশল বিনিময় করে তার কল্যান কামনা করেছেন।
এর আগে বুধবার দিনব্যাপি মো: জাহাঙ্গীর আলমকে বিদায়ী সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে বঙ্গবন্ধু পৌর অডিটরিয়ামে অবসর জনিত কারণে আড়ম্বরপূর্ণ এ বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ সময় উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির ব্যানারে শিক্ষক সমাজের পক্ষ থেকে তাকে ফুলের তোড়া ও ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।
উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি মো: সেলিম আহম্মেদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মন্নানের সঞ্চালনায় এর উদ্বোধন করেন, বেতাগী পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব এবিএম গোলাম কবির। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো: মাকসুদুর রহমান ফোরকান, বিশেষ অতিথি ছিলেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম পিন্টু, মাহামুদা খানম. বেতাগী থানার অফিসার ইনচার্জ মো: শাহআলম হাওলাদার, সহকারি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো: মফিজুল ইসলাম ও মো: মোজাফার উ্দ্দীন।
বিদায়ী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো: জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিদায়ের এ ক্ষণে সকলের সম্মাণ ও ভালবাসায় আমি অভিভূত। চাকরিতে থাকাকালীণ সময়ে সততা ও নিষ্ঠার সাথে দেশের কল্যাণে নিবেদিত থেকে সেবা দেওয়ার আপ্রাণ চেষ্টা করেছি। কতটুকু পেরেছি তার বিবেচনার ভার সহকর্মী ও অন্য সকলের উপড়।
জাহাঙ্গীর আলম এ উপজেলায় অল্প সময়ে একজন সৎ, সাদা মনের মানুষ, কর্তব্যপরায়ন অফিসার হিসেবে স্বীকৃতি পান। তাঁর বিদায়ে প্রাথমিক শিক্ষক সমাজের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে সকলেই ভারাক্রান্ত।
উল্লেখ্য, জাহাঙ্গীর আলম ৪ জানুয়ারি‘২০১৮ বেতাগী উপজেলা শিক্ষা অফিসার হিসেবে যোগদান করেন। এর আগে পহেলা জানুয়ারি‘ ১৯৯১ বেসরকারি কলেজ পর্যায় প্রভাষক পদে, ৪ নভেম্বর ‘১৯৯৩ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে তার কর্মজীবনে প্রবেশ করে ১৯ অক্টোবর‘ ১৯৯৬ থেকে এ.ইউ.ই.ও হিসেবে দীর্ঘ সময় দায়িত্ব পালন করেন।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..