রবিবার, ১৯ মে ২০২৪, ০৭:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
জাল ভোট পড়লেই কেন্দ্র বন্ধ করে দেওয়া হবে : ইসি আহসান হাবিব জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে কেউ যেন বৈষম্যের শিকার না হন: রাষ্ট্রপতি শিক্ষার্থীদের মেধা বিকাশে মুখস্ত শিক্ষার ওপর নির্ভরতা কমাতে পাঠ্যক্রমে পরিবর্তন আনা হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী কিশোরগঞ্জে তীব্র দাবদাহে ইসলামী যুব আন্দোলনের হাতপাখা বিতরণ দেশের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করতে টেকসই কৌশল উদ্ভাবনের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর হলুদ সাংবাদিকতা প্রতিরোধে সকলকে দায়িত্বশীল হতে হবে : বিচারপতি নিজামুল হক গলাচিপা ও দশমিনায় প্রকাশ্যে নিধন হচ্ছে রেনু পোনা,কথা বলতে নারাজ কর্তৃপক্ষ ডিএসইসির নবনির্বাচিত কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ বেলা অবেলা : স্বপ্না রহমান ডিএসইসি’র নতুন সভাপতি ডিবিসি’র মুক্তাদির অনিক

সৌদিতে রাস্তায় নাচের ঝড় তুললেন তিন তরুণী

অনলাইন ডেস্ক
  • আপলোডের সময় : সোমবার, ১০ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৬০৩০ বার পঠিত

সাম্বা ড্যান্স মানেই ব্রাজিল, যা ব্রাজিলের ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতির অংশ। সাধারণত খোলামেলা পোশাকে নারীরা এই এই ড্যান্সে অংশ নেয়।

অন্যদিকে, সৌদি আরব রক্ষণশীল দেশ, যেখানে সাধারণ নারীদের পর্দায় থাকার বিধান জারি আছে।

তবে এবার সেই সৌদির রাস্তায়ই হয়ে গেল সাম্বা নাচের ঝড়। তিন বিদেশি আফ্রিকান নারী ব্রাজিলের ঐতিহ্যবাহী খোলামেলা পোশাকে এই সৌদির রাস্তায় সাম্বা নাচের ঝড় তুলেছেন।
এই নাচের ভিডিও গত সপ্তাহ থেকে সৌদির সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। পরে অবশ্য প্রকাশ্যে এমন নাচ করায় সমালোচনা ঝড় উঠেছে।

সৌদি আরবের মোট জনসংখ্যার দুই তৃতীয়াংশের বয়স ৩০ এর নিচে। দেশটির উত্তরাধিকারী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান দেশটিতে বিভিন্ন ধরনের সংস্কার কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন। সৌদি আরব তাদের বিনোদন জগত বৈচিত্রপূর্ণ করার উদ্যোগ নিয়েছে। এর অংশ হিসেবে বছরজুড়েই সৌদি আরবে গানের বিশাল কনসার্টসহ বিভিন্ন উৎসব ও খেলাধুলা অনুষ্ঠিত হয়। মূলত তেল নির্ভর অর্থনীতি থেকে বেরিয়ে আসতে ইউরোপ-আমেরিকার বিনিয়োগকারীদের দৃষ্টি আকর্ষণ করার জন্যই এই সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি দক্ষিণ সৌদির জাজান প্রদেশে শীতকালীন উৎসবে তিন বিদেশি নারী খোলামেলা পোশাক পরে রাস্তায় সাম্বা নাচ পরিবেশন করেন। এর একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়।

খবরে বলা হয়েছে, সাম্বা নাচ পরিবেশনকারী নারীরা ব্রাজিলের ঐতিহ্যবাহী পালকের রঙ আকৃতির পোশাক পরেন। এই পোশাকে দুই পা, বাহু এবং পেট খোলা থাকে।

সৌদির রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন আল আখবারিয়া টিভি এই অনুষ্ঠানের ফুটেজ প্রচার করে। কিন্তু এতে ওই নারীদের ছবি ঝাঁপসা করে দেওয়া হয়।

সৌদিতে সাম্বা নাচের প্রতিক্রিয়ায় জাজানের বাসিন্দা বাজবি বলেন, উৎসব বিনোদনের জন্য, কিন্তু এটা ধর্ম ও সামাজিক নৈতিকতাকে আক্রমণের জন্য হওয়া উচিত নয়।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই ঘটনার জন্য দায়ীদের বিচারের মুখোমুখি করার দাবি উঠেছে। সমালোচনার মুখে জাজানের গভর্নর মোহাম্মদ বিন নাসের শনিবার ঘটনার তদন্ত এবং উৎসবের নামে এমন ধরনের অপব্যবহার বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া কথা বলেছেন।

ওদিকে, সমালোচক এবং মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলো বলছে, ২০১৮ সালে সাংবাদিক জামাল খাশোগির নির্মম হত্যাকাণ্ড এবং দুর্বল মানবাধিকার রেকর্ড গোপন করার জন্য সৌদি আরব ক্রীড়া এবং বিনোদন অনুষ্ঠানকে ব্যবহার করছে।

সূত্র: আল-আরাবি ইউকে, গালফ নিউজ, পারসি বেকন নিউজ

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..