সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৬:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
রাঙ্গাবালী উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন সভাপতি আরিফ, সম্পাদক জামিল পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি প্রধান আসামি গ্রেফতার মুরাদনগরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্লাস্টিকের বেঞ্চ সরবরাহ দা-বঁটি-ছুরি-চাপাতি বানাতে ব্যস্ত কামার শিল্পী, টুংটাং শব্দে মুখরিত তাড়াইল মির্জাগঞ্জে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) উদ্যোগে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ মিরপুর সাইন্স কলেজের ৩য় ব্যাচের শিক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আয়োজনে সকল রাজনৈতিক দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে : ওবায়দুল কাদের শেখ হাসিনা-মোদি বৈঠকে দু’দেশের সম্পর্ক আগামীতে আরো দৃঢ় করার ব্যাপারে আশাবাদী মোদির শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগদান শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী মির্জাগঞ্জে উপজেলা চেয়ারম্যান আবু বকর, ভা: চেয়ারম্যান শাওন মহিলা ভা: চেয়ারম্যান হাসিনা নির্বাচিত

পাবনায় আবৃত্তি প্রশিক্ষণের জন্য ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ, প্রশিক্ষক গ্রেপ্তার

কলিট তালুকদার (পাবনা প্রতিনিধি):
  • আপলোডের সময় : সোমবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ৫৮৪০ বার পঠিত

পাবনায় কবিতা আবৃত্তি ও উপস্থাপনা প্রশিক্ষণের জন্য ডেকে নিয়ে এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক আবৃত্তিকারের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর সোমবার তাকে গ্রেপ্তারের পর আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গতকাল রবিবার সকালে পাবনা শহরের রানা কমপ্লেক্সে শব্দকলা মাল্টিমিডিয়া সেন্টারে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বলে অভিযোগ ভুক্তভোগীর। গ্রেপ্তার হওয়া আবৃত্তিকারের নাম আসাদুল রশিদ (৪৫)। তিনি শহরে ‘পীর বাবু’ ও ‘আসাদ বাবু’ নামে পরিচিত। তাঁর বাড়ি পাবনা সদর উপজেলার সিংগা কারিগরপাড়ায়।

মামলার এজাহার ও মেয়েটির পরিবারের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, আসাদুল রশিদ নিজেকে আবৃত্তিকার পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করেন। কিছুদিন আগে তিনি আবৃত্তি ও উপস্থাপনা শেখানোর জন্য রানা কমপ্লেক্সে একটি কক্ষ ভাড়া নিয়ে স্টুডিও স্থাপন করেছেন। সেখানে কবিতা আবৃত্তি ও উপস্থাপনা শেখানো হবে বলে প্রচার করছিলেন। বিষয়টি জেনে ওই কলেজছাত্রী তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে আসাদুল রশিদ মেয়েটিকে তাঁর কার্যালয়ে ডেকে নেন। এ সময় কার্যালয়ে তিনি একাই ছিলেন। পরে মেয়েটিকে তিনি কয়েক দফা ধর্ষণ করেন। পুরো ঘটনার ভিডিও ধারণ ও মেয়েটির ছবিও তুলে রাখেন আসাদুল। মেয়েটি বাড়িতে ফিরে তাঁর পরিবারকে বিষয়টি জানান। এ ঘটনায় মেয়েটির মা গতকাল রাতে ধর্ষণের অভিযোগে আসাদুল রশিদকে আসামি করে পাবনা সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পরে রাতেই মেয়েটির স্বজনরা তাকে শহরের বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম বকুল স্বাধীনতা চত্বর থেকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে। মেয়েটির মা জানান, ঘটনার পর থেকে তাঁর মেয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন। কারও সঙ্গে কথা বলছেন না। এ অবস্থায় মেয়েকে নিয়ে তিনি খুব অসহায় হয়ে পড়েছেন। মা হিসাবে তিনি কী করবেন, বুঝে উঠতে পারছেন না। এ অপরাধের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান।

পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্দু বালা বলেন, অভিযোগ পেয়ে পুলিশ আবৃত্তি শেখানোর ওই কার্যালয় পরিদর্শন করে। মেয়েটির স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেই সঙ্গে গ্রেপ্তার আসামিকে সোমবার আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

দয়া করে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..